ঢাকা ০৭:১৭ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

১৮ ঘন্টা পেরিয়ে গেলেও পুরোপুরি নেভেনি চট্টগ্রামে চিনিকলের আগুন, পুড়ে গেছে ১ লাখ টন চিনি!

বাংলাদেশ কণ্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় : ০২:১৭:৫২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ মার্চ ২০২৪ ১৮ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিনিধি :

চট্টগ্রামের কর্ণফুলীতে এস আলম সুগার মিলের আগুন এখনো পুরোপুরি নিভে যায়নি। কারখানার গুদামে লাগা আগুন আজ মঙ্গলবার (৫ মার্চ) সকাল সাড়ে ৭টার দিকেও জ্বলতে দেখা গেছে। তবে গুদাম থেকে আগুন ছড়ায়নি।

চট্টগ্রাম ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক এমডি আব্দুল মালেক জানান, রাত ১১টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। এখান থেকে আগুন আর ছড়াবে না। আমরা আগুন পুরোপুরি নেভাতে চেষ্টা করছি।

এর আগে সোমবার (৪ মার্চ) বিকেল ৩টা ৫৩ মিনিটে চট্টগ্রামের কর্ণফুলী থানা এলাকায় এস আলম সুগার ইন্ডাস্ট্রিজ চিনিকলে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। রমজান মাস ঘিরে বিপুল পরিমাণ চিনি আমদানি করেছে এস আলম সুপার রিফাইন্ড সুগার ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড। ওই চিনিকলটিতে এক লাখ মেট্রিক টন পরিশোধিত ও অপরিশোধিত চিনি মজুত ছিল।

বিকেলে আগুন লাগার পর চার ঘণ্টা ধরে আগুন জ্বলে। পরে ফায়ার সার্ভিসের পাঁচটি স্টেশনের ১৫টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে। যখন ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের হিমশিম খেতে হয়, তখন আগুন নিয়ন্ত্রণে সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী, বিমান বাহিনী ও কোস্টগার্ডের সদস্যরা যোগ দেন। এছাড়া ঘটনাস্থলে বিপুল সংখ্যক র‌্যাব ও পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এরই মধ্যে কী পরিমাণ চিনি পুড়েছে তা আগুন নেভানোর পর নিশ্চিত হওয়া যাবে। চিনিকলের কর্মকর্তারা ধারণা করছেন, বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে।

১৮ ঘন্টা পেরিয়ে গেলেও পুরোপুরি নেভেনি চট্টগ্রামে চিনিকলের আগুন, পুড়ে গেছে ১ লাখ টন চিনি!

আপডেট সময় : ০২:১৭:৫২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ মার্চ ২০২৪

নিজস্ব প্রতিনিধি :

চট্টগ্রামের কর্ণফুলীতে এস আলম সুগার মিলের আগুন এখনো পুরোপুরি নিভে যায়নি। কারখানার গুদামে লাগা আগুন আজ মঙ্গলবার (৫ মার্চ) সকাল সাড়ে ৭টার দিকেও জ্বলতে দেখা গেছে। তবে গুদাম থেকে আগুন ছড়ায়নি।

চট্টগ্রাম ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক এমডি আব্দুল মালেক জানান, রাত ১১টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। এখান থেকে আগুন আর ছড়াবে না। আমরা আগুন পুরোপুরি নেভাতে চেষ্টা করছি।

এর আগে সোমবার (৪ মার্চ) বিকেল ৩টা ৫৩ মিনিটে চট্টগ্রামের কর্ণফুলী থানা এলাকায় এস আলম সুগার ইন্ডাস্ট্রিজ চিনিকলে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। রমজান মাস ঘিরে বিপুল পরিমাণ চিনি আমদানি করেছে এস আলম সুপার রিফাইন্ড সুগার ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড। ওই চিনিকলটিতে এক লাখ মেট্রিক টন পরিশোধিত ও অপরিশোধিত চিনি মজুত ছিল।

বিকেলে আগুন লাগার পর চার ঘণ্টা ধরে আগুন জ্বলে। পরে ফায়ার সার্ভিসের পাঁচটি স্টেশনের ১৫টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে। যখন ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের হিমশিম খেতে হয়, তখন আগুন নিয়ন্ত্রণে সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী, বিমান বাহিনী ও কোস্টগার্ডের সদস্যরা যোগ দেন। এছাড়া ঘটনাস্থলে বিপুল সংখ্যক র‌্যাব ও পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এরই মধ্যে কী পরিমাণ চিনি পুড়েছে তা আগুন নেভানোর পর নিশ্চিত হওয়া যাবে। চিনিকলের কর্মকর্তারা ধারণা করছেন, বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে।