ঢাকা ১২:১৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo উত্তরায় গুলিতে নর্দান বিশ্ববিদ্যালয়ের ২ শিক্ষার্থী নিহত Logo কোটা সংস্কারের দাবির সঙ্গে একমত পোষণ করেছে সরকার: আইনমন্ত্রী Logo মোবাইলে ইন্টারনেট সংযোগ বন্ধ Logo ঢাকার সঙ্গে সব জেলার যোগাযোগ বন্ধ, টার্মিনাল থেকে ছাড়ছে না কোনো বাস Logo ছাত্রলীগের সঙ্গে আন্দোলনকারীদের সংঘর্ষ, ঢাকা চট্টগ্রামে ও রংপুরে ৫ জন নিহত Logo কোটাবিরোধী আন্দোলনকারীদের সঙ্গে ছাত্রলীগের দফায় দফায় সংঘর্ষ, সারাদেশে নিহত ৫ Logo ডেসকো’র উদ্যোগে অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন Logo র‍্যাংগস ই-মার্ট এনেছে এলজির নতুন ও এলইডি সি থ্রি সিরিজ ২০২৪ Logo বিদ্যুতের খুঁটিতে আটকা আঞ্চলিক দুই মহাসড়কের কাজ, দুর্ভোগ-ভোগান্তি Logo কোটা আন্দোলনকে রাজনৈতিকভাবে মোকাবিলা করার ইচ্ছা নেই: ওবায়দুল কাদের

সিনহাকে নিয়ে মিথ্যা মামলা, নাজমুল হুদার বিরুদ্ধে দুদকের পাল্টা মামলা

বাংলাদেশ কণ্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় : ০৩:৫০:৫৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৪ মে ২০২৩ ২৫ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিনিধি:
সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার (এস কে সিনহা) বিরুদ্ধে ঘুষের মিথ্যা মামলা দায়েরের অভিযোগে সাবেক যোগাযোগমন্ত্রী ব্যারিস্টার নাজমুল হুদার বিরুদ্ধে পাল্টা মামলা করেছে দুদক। এ ঘটনায় হুদার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরু হয়। গত ১৯ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান নাজমুল হুদা। তার মৃত্যুর কারণে বিচারিক আদালত তাকে মামলার দায় থেকে অব্যাহতি দেন।

নাজমুল হুদার মৃত্যু প্রতিবেদনের পর বুধবার (৩ মে) ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৯ এর বিচারক শেখ হাফিজুর রহমান মামলাটি রেকর্ড করে তাকে অব্যাহতি দেন।

আদেশে বিচারক উল্লেখ করেন, নাজমুল হুদার মৃত্যু সংক্রান্ত প্রতিবেদন ও আদেশ গ্রহণের জন্য দিন ধার্য করা হয়েছে। রাষ্ট্রপক্ষের পিপি উপস্থিত ছিলেন। ধানমন্ডি মডেল থানা থেকে তার মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, গত ২৯ ফেব্রুয়ারি নাজমুল হুদা মারা যান। মামলার একমাত্র আসামি মারা যাওয়ায় তাৎক্ষণিকভাবে মামলার কার্যক্রম বন্ধ করেমামলাটি নথিজাত করা হয়েছে।

দুদকের আইনজীবী এম এ সালাউদ্দিন ইস্কান্দার কিং বলেন, এ মামলার একমাত্র আসামি ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা। ১৯ ফেব্রুয়ারি তিনি মারা যান। পুলিশ তার মৃত্যুর রিপোর্ট দায়ের করে। একমাত্র আসামি মারা যাওয়ায় মামলা চলতে পারে না। তাই বিচারক মামলাটি নথিভুক্ত করে নাজমুল হুদাকে মামলার দায় থেকে অব্যাহতি দেন।

এসকে সিনহার বিরুদ্ধে ২০১৮ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর শাহবাগ থানায় মামলা করেন ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা। ওই মামলায় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে তার বিরুদ্ধে করা একটি মামলার রায় পরিবর্তন করে পক্ষ নেওয়ার অভিযোগ করা হয়।

তবে দেড় বছরের তদন্তে নাজমুল হুদার অভিযোগের কোনো প্রমাণ পায়নি দুদক। ফলে ২০২১ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি নাজমুল হুদার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগে পাল্টা মামলা করেন দুদকের পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেন। আরেক পরিচালক মো. বেনজীর আহমেদকে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়।

 

সিনহাকে নিয়ে মিথ্যা মামলা, নাজমুল হুদার বিরুদ্ধে দুদকের পাল্টা মামলা

আপডেট সময় : ০৩:৫০:৫৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৪ মে ২০২৩

নিজস্ব প্রতিনিধি:
সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার (এস কে সিনহা) বিরুদ্ধে ঘুষের মিথ্যা মামলা দায়েরের অভিযোগে সাবেক যোগাযোগমন্ত্রী ব্যারিস্টার নাজমুল হুদার বিরুদ্ধে পাল্টা মামলা করেছে দুদক। এ ঘটনায় হুদার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরু হয়। গত ১৯ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান নাজমুল হুদা। তার মৃত্যুর কারণে বিচারিক আদালত তাকে মামলার দায় থেকে অব্যাহতি দেন।

নাজমুল হুদার মৃত্যু প্রতিবেদনের পর বুধবার (৩ মে) ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৯ এর বিচারক শেখ হাফিজুর রহমান মামলাটি রেকর্ড করে তাকে অব্যাহতি দেন।

আদেশে বিচারক উল্লেখ করেন, নাজমুল হুদার মৃত্যু সংক্রান্ত প্রতিবেদন ও আদেশ গ্রহণের জন্য দিন ধার্য করা হয়েছে। রাষ্ট্রপক্ষের পিপি উপস্থিত ছিলেন। ধানমন্ডি মডেল থানা থেকে তার মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, গত ২৯ ফেব্রুয়ারি নাজমুল হুদা মারা যান। মামলার একমাত্র আসামি মারা যাওয়ায় তাৎক্ষণিকভাবে মামলার কার্যক্রম বন্ধ করেমামলাটি নথিজাত করা হয়েছে।

দুদকের আইনজীবী এম এ সালাউদ্দিন ইস্কান্দার কিং বলেন, এ মামলার একমাত্র আসামি ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা। ১৯ ফেব্রুয়ারি তিনি মারা যান। পুলিশ তার মৃত্যুর রিপোর্ট দায়ের করে। একমাত্র আসামি মারা যাওয়ায় মামলা চলতে পারে না। তাই বিচারক মামলাটি নথিভুক্ত করে নাজমুল হুদাকে মামলার দায় থেকে অব্যাহতি দেন।

এসকে সিনহার বিরুদ্ধে ২০১৮ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর শাহবাগ থানায় মামলা করেন ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা। ওই মামলায় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে তার বিরুদ্ধে করা একটি মামলার রায় পরিবর্তন করে পক্ষ নেওয়ার অভিযোগ করা হয়।

তবে দেড় বছরের তদন্তে নাজমুল হুদার অভিযোগের কোনো প্রমাণ পায়নি দুদক। ফলে ২০২১ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি নাজমুল হুদার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগে পাল্টা মামলা করেন দুদকের পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেন। আরেক পরিচালক মো. বেনজীর আহমেদকে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়।