ঢাকা ১১:২৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo উত্তরায় গুলিতে নর্দান বিশ্ববিদ্যালয়ের ২ শিক্ষার্থী নিহত Logo কোটা সংস্কারের দাবির সঙ্গে একমত পোষণ করেছে সরকার: আইনমন্ত্রী Logo মোবাইলে ইন্টারনেট সংযোগ বন্ধ Logo ঢাকার সঙ্গে সব জেলার যোগাযোগ বন্ধ, টার্মিনাল থেকে ছাড়ছে না কোনো বাস Logo ছাত্রলীগের সঙ্গে আন্দোলনকারীদের সংঘর্ষ, ঢাকা চট্টগ্রামে ও রংপুরে ৫ জন নিহত Logo কোটাবিরোধী আন্দোলনকারীদের সঙ্গে ছাত্রলীগের দফায় দফায় সংঘর্ষ, সারাদেশে নিহত ৫ Logo ডেসকো’র উদ্যোগে অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন Logo র‍্যাংগস ই-মার্ট এনেছে এলজির নতুন ও এলইডি সি থ্রি সিরিজ ২০২৪ Logo বিদ্যুতের খুঁটিতে আটকা আঞ্চলিক দুই মহাসড়কের কাজ, দুর্ভোগ-ভোগান্তি Logo কোটা আন্দোলনকে রাজনৈতিকভাবে মোকাবিলা করার ইচ্ছা নেই: ওবায়দুল কাদের

সাপাহারে গলায় ফাঁস দিয়ে যুবকের আত্মহত্যা

বাংলাদেশ কণ্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় : ০৬:৫৩:৫৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মার্চ ২০২৩ ১৭ বার পঠিত

নওগাঁ প্রতিনিধি:
নওগাঁর সাপাহার সদরের তুলাপট্রিতে শ্রী রতন ভগত নামের এক কাপড় ও বেডিং ব্যবসায়ীর ছেলে শ্রী: আশীষ ভগত (৩২) শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে।
জানা গেছে, পারিবারিক কলহের কারণে আশীষ ঘটনার দিন দুপুর ১২টার দিকে তার শয়ন ঘরে প্রবেশ করে দরজা বন্ধ করে দেয়। বিকেল ৩টার দিকে বাড়ীর লোকজন দুপুরের খাবার খাওয়ার জন্য তাকে ডাকতে গিয়ে ঘরের সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় ঝুলতে দেখতে পায়। বেঁচে আছে মনে করে বাড়ির লোকজন তাকে ফাঁস হতে নামালে ততক্ষনে তার মৃত্যু হয়। সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশের সুরত হাল রিপোর্টে তৈরী করে লাশ থানা হেফাজতে নেন। এবিষয়ে সাপাহার থানায় একটি ইউডি মামলা দায়ের হয়েছে। সাপাহার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হুমায়ন কবির ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।

সাপাহারে গলায় ফাঁস দিয়ে যুবকের আত্মহত্যা

আপডেট সময় : ০৬:৫৩:৫৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মার্চ ২০২৩

নওগাঁ প্রতিনিধি:
নওগাঁর সাপাহার সদরের তুলাপট্রিতে শ্রী রতন ভগত নামের এক কাপড় ও বেডিং ব্যবসায়ীর ছেলে শ্রী: আশীষ ভগত (৩২) শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে।
জানা গেছে, পারিবারিক কলহের কারণে আশীষ ঘটনার দিন দুপুর ১২টার দিকে তার শয়ন ঘরে প্রবেশ করে দরজা বন্ধ করে দেয়। বিকেল ৩টার দিকে বাড়ীর লোকজন দুপুরের খাবার খাওয়ার জন্য তাকে ডাকতে গিয়ে ঘরের সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় ঝুলতে দেখতে পায়। বেঁচে আছে মনে করে বাড়ির লোকজন তাকে ফাঁস হতে নামালে ততক্ষনে তার মৃত্যু হয়। সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশের সুরত হাল রিপোর্টে তৈরী করে লাশ থানা হেফাজতে নেন। এবিষয়ে সাপাহার থানায় একটি ইউডি মামলা দায়ের হয়েছে। সাপাহার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হুমায়ন কবির ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।