ঢাকা ০২:৩৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সরকারি চাকরিতে কোটা বাতিলের দাবিতে জাবি শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

ইউসূফ জামিল, জাবি প্রতিনিধি :
  • আপডেট সময় : ০৮:১৪:১৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ জুলাই ২০২৪ ২৫ বার পঠিত
সরকারি চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধা কোটা পুনর্বহাল করা নিয়ে হাইকোর্টের রায় প্রত্যাখ্যান করে ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) শিক্ষার্থীরা।
সোমবার (১ জুলাই) এগারোটায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণ হতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক (ডেইরি গেইট) পর্যন্ত মিছিল করে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা।
বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভিদবিদ্যা বিভাগের শিক্ষার্থী জাহিদুল ইসলাম ইমন বলেন, যারা আজকে কোটা বিরোধী আন্দোলনে অংশগ্রহণ করেননি তাদের হয়তো অন্য পরিকল্পনা আছে, কিন্তু তারা আগামী প্রজন্মকে কি জবাব দিবে? তারা হয়তো বলবে আমরা ভীতু-কাপুরুষ ছিলাম তাই আমরা ছাত্র অধিকারের সেই আন্দোলনে অংশগ্রহণ করতে পারিনি।
তিনি আরো বলেন, সংবিধানে স্পষ্ট লিখা আছে শুধুমাত্র পিছিয়ে পড়া গোষ্ঠীর জন্যই কোটা থাকবে। কিন্তু এই পিছিয়ে পড়া জাতি কি মুক্তিযোদ্ধার নাতি? নাকি মুক্তিযোদ্ধার ছেলে?
আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের শিক্ষার্থী সিয়াম বলেন, আমরা যারা কোটা সংস্কার আন্দোলন করি আমরা নাকি জামাত-শিবির করি। কারণ হিসেবে দেখানো হয় আমরা রাষ্ট্রীয় আইনের বিরুদ্ধে আন্দোলন করছি। তাহলে আমরা বলতে চাই যে শিক্ষকরা আজকে প্রত্যয় পেনশন স্কিমের বিরুদ্ধে আন্দোলন করছে তারাও কি জামাত শিবির কিনা?
মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত পরিসরে ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীরা। আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধের হুশিয়ারি দিয়ে বলেন, আমাদের দাবী পূরণ না হলে ঢাকা আরিচা মহাসড়কে লাগাতার অবরোধ কর্মসূচি দেওয়া হবে। একটা গাড়িও চলবে না। এ সময় তারা লাখো শহিদের বাংলায়, কোটা প্রথার ঠায় নাই, জেগেছে রে জেগেছে, ছাত্র সমাজ জেগেছে ইত্যাদি স্লোগানে আকাশ বাতাস কম্পিত করেন।

সরকারি চাকরিতে কোটা বাতিলের দাবিতে জাবি শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

আপডেট সময় : ০৮:১৪:১৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ জুলাই ২০২৪
সরকারি চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধা কোটা পুনর্বহাল করা নিয়ে হাইকোর্টের রায় প্রত্যাখ্যান করে ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) শিক্ষার্থীরা।
সোমবার (১ জুলাই) এগারোটায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণ হতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক (ডেইরি গেইট) পর্যন্ত মিছিল করে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা।
বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভিদবিদ্যা বিভাগের শিক্ষার্থী জাহিদুল ইসলাম ইমন বলেন, যারা আজকে কোটা বিরোধী আন্দোলনে অংশগ্রহণ করেননি তাদের হয়তো অন্য পরিকল্পনা আছে, কিন্তু তারা আগামী প্রজন্মকে কি জবাব দিবে? তারা হয়তো বলবে আমরা ভীতু-কাপুরুষ ছিলাম তাই আমরা ছাত্র অধিকারের সেই আন্দোলনে অংশগ্রহণ করতে পারিনি।
তিনি আরো বলেন, সংবিধানে স্পষ্ট লিখা আছে শুধুমাত্র পিছিয়ে পড়া গোষ্ঠীর জন্যই কোটা থাকবে। কিন্তু এই পিছিয়ে পড়া জাতি কি মুক্তিযোদ্ধার নাতি? নাকি মুক্তিযোদ্ধার ছেলে?
আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের শিক্ষার্থী সিয়াম বলেন, আমরা যারা কোটা সংস্কার আন্দোলন করি আমরা নাকি জামাত-শিবির করি। কারণ হিসেবে দেখানো হয় আমরা রাষ্ট্রীয় আইনের বিরুদ্ধে আন্দোলন করছি। তাহলে আমরা বলতে চাই যে শিক্ষকরা আজকে প্রত্যয় পেনশন স্কিমের বিরুদ্ধে আন্দোলন করছে তারাও কি জামাত শিবির কিনা?
মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত পরিসরে ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীরা। আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধের হুশিয়ারি দিয়ে বলেন, আমাদের দাবী পূরণ না হলে ঢাকা আরিচা মহাসড়কে লাগাতার অবরোধ কর্মসূচি দেওয়া হবে। একটা গাড়িও চলবে না। এ সময় তারা লাখো শহিদের বাংলায়, কোটা প্রথার ঠায় নাই, জেগেছে রে জেগেছে, ছাত্র সমাজ জেগেছে ইত্যাদি স্লোগানে আকাশ বাতাস কম্পিত করেন।