ঢাকা ১০:০২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শ্রীপুরে হাসপাতালে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান

বাংলাদেশ কণ্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় : ০৮:০০:২০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ মার্চ ২০২৪ ২৩ বার পঠিত

শ্রীপুর প্রতিনিধি :

গাজীপুরের শ্রীপুরের মাওনা চৌরাস্তায় অনুমোদনবিহীন হাসপাতালে অভিযান চালিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। এসময় দুটি হাসপাতালকে ৬০ হাজার টাকা জরিমানা ও একটি হাসপাতাল সিলগালা ও বিদ্যুত সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।
আজ দুপুরে গাজীপুরের শ্রীপুর পৌর এলাকার মাওনা চৌরাস্তায় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট আল মামুন।

ভ্রাম্যমান আদালত সূত্রে জানা গেছে, শ্রীপুর উপজেলায় ৩২টি অনুমোদনহীন বেসরকারি হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার রয়েছে। এসব নামসর্বস্ব হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে অনেক ক্ষেত্রে সাধারণ মানুষ হয়রানি হচ্ছে। বিভিন্ন অভিযোগে এস আর ইবনে সিনা এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ১০ হাজার টাকা ও মাওনা ল্যাব এইড হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ৫০হাজার টাকা জরিমানা, সিলগালা বিদ্যুত সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার নির্দেশনা দেয়া হয়।

ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক শ্রীপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি ও নির্বাহী মো. আল মামুন বলেন, বিভিন্ন অভিযোগে মাওনা ল্যাব এইড হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় অসঙ্গতি থাকায় ৫০হাজার টাকা জরিমানা, সিলগালা ও বিদ্যুত সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার নির্দেশনা দেয়া হয়। হাসপাতালে রোগী থাকায় সিলগালা ও বিদ্যুত সংযোগ বিচ্ছিন্ন করণের নির্দেশনা তাৎক্ষণিকভাবে বাস্তবায়ন না করে একদিন সময় দেয়া হয়। এসময় মাওনা ল্যাব এইড হাসপাতালের মালিক পালিয়ে যায়। তাকে পুলিশ দিয়ে খোঁজে আনা হয়। একই সাথে এসআর ইবনে সিনা এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে কাগজপত্রে অসঙ্গতি থাকায় ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এসময় মাওনা ল্যাবএইড হাসপাতালের মালিক পালিয়ে যায়। তাকে পুলিশ দিয়ে খোঁজে এনে ৫০হাজার টাকা অর্থদন্ড করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে শ্রীপুরের সবকটি হাসপাতালে ভ্রাম্যমান আদালতে অভিযান চালানো হবে। অবৈধ হাসপাতালের কার্যক্রম বন্ধ করা হবে। অপরদিকে মাওনা পপুলার মেডিকেল সেন্টারের অনুমোদনসহ যাবতীয় কাগজপত্র সঠিক পাওয়া যায়।

শ্রীপুরে হাসপাতালে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান

আপডেট সময় : ০৮:০০:২০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ মার্চ ২০২৪

শ্রীপুর প্রতিনিধি :

গাজীপুরের শ্রীপুরের মাওনা চৌরাস্তায় অনুমোদনবিহীন হাসপাতালে অভিযান চালিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। এসময় দুটি হাসপাতালকে ৬০ হাজার টাকা জরিমানা ও একটি হাসপাতাল সিলগালা ও বিদ্যুত সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।
আজ দুপুরে গাজীপুরের শ্রীপুর পৌর এলাকার মাওনা চৌরাস্তায় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট আল মামুন।

ভ্রাম্যমান আদালত সূত্রে জানা গেছে, শ্রীপুর উপজেলায় ৩২টি অনুমোদনহীন বেসরকারি হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার রয়েছে। এসব নামসর্বস্ব হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে অনেক ক্ষেত্রে সাধারণ মানুষ হয়রানি হচ্ছে। বিভিন্ন অভিযোগে এস আর ইবনে সিনা এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ১০ হাজার টাকা ও মাওনা ল্যাব এইড হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ৫০হাজার টাকা জরিমানা, সিলগালা বিদ্যুত সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার নির্দেশনা দেয়া হয়।

ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক শ্রীপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি ও নির্বাহী মো. আল মামুন বলেন, বিভিন্ন অভিযোগে মাওনা ল্যাব এইড হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় অসঙ্গতি থাকায় ৫০হাজার টাকা জরিমানা, সিলগালা ও বিদ্যুত সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার নির্দেশনা দেয়া হয়। হাসপাতালে রোগী থাকায় সিলগালা ও বিদ্যুত সংযোগ বিচ্ছিন্ন করণের নির্দেশনা তাৎক্ষণিকভাবে বাস্তবায়ন না করে একদিন সময় দেয়া হয়। এসময় মাওনা ল্যাব এইড হাসপাতালের মালিক পালিয়ে যায়। তাকে পুলিশ দিয়ে খোঁজে আনা হয়। একই সাথে এসআর ইবনে সিনা এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে কাগজপত্রে অসঙ্গতি থাকায় ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এসময় মাওনা ল্যাবএইড হাসপাতালের মালিক পালিয়ে যায়। তাকে পুলিশ দিয়ে খোঁজে এনে ৫০হাজার টাকা অর্থদন্ড করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে শ্রীপুরের সবকটি হাসপাতালে ভ্রাম্যমান আদালতে অভিযান চালানো হবে। অবৈধ হাসপাতালের কার্যক্রম বন্ধ করা হবে। অপরদিকে মাওনা পপুলার মেডিকেল সেন্টারের অনুমোদনসহ যাবতীয় কাগজপত্র সঠিক পাওয়া যায়।