ঢাকা ০৬:০৭ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মাত্র ৩৪ বলেই ম্যাচ জিতে সুপার এইটে অস্ট্রেলিয়া

স্পোটর্স ডেস্ক:
  • আপডেট সময় : ০২:৩৩:২৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ জুন ২০২৪ ৫২ বার পঠিত

অ্যাডাম জাম্পা, জস হ্যাজেলউড এবং মার্কাস স্টয়নিসরা মাত্র ৭২ রানে নামিবিয়াকে আউট করে। ব্যাট করতে নেমে নামিবিয়ার বোলারদের বেদম পিটিয়ে মাত্র ৩৪ (৫.৪ ওভার) বলে ৯ উইকেটের জয় তুলে নিয়েছে ডেভিড ওয়ার্নার, ট্রাভিস হেড ও অধিনায়ক মিচেল মার্শ। ৩ ম্যাচের ৩টিতেই জিতে বি-গ্রুপ থেকে সবার আগে সেরা আট একরকম নিশ্চিত করে ফেলেছে অস্ট্রেলিয়া।

নামিবিয়ার বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ার ৮৬ বল বাকি থাকতেই জয়টি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ইতিহাসে দ্বিতীয় দ্রুততম জয়। এর আগে ২০০৯ সালে, শ্রীলঙ্কা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দ্বিতীয় আসরে নেদারল্যান্ডসকে ৯০ বল হাতে রেখে হারিয়েছিল। সেটিও ৯ উইকেটের জয় ছিল।

আজ বুধবার ভোরে (বাংলাদেশ সময়) অ্যান্টিগুয়ার স্যার ভিভিয়ান রিচার্ডস স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে হ্যাজলউড ও প্যাট কামিন্সের তোপের মুখে মাত্র ২১ রানের মাথায় ৫ উইকেট হারায় নামিবিয়া।

দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৬ রান করেন অধিনায়ক গেরহাস ইরাসমাস। আর মাইকেল ফন লিংজেন করেন ১০ রান। বাকিদের কেউই দুই অঙ্কের ঘর ছুঁতে পারেনি। আফ্রিকান দেশটি ১৭ ওভারে ৭২ রানে গুটিয়ে যায়।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে মাত্র ১২ রান খরচায় ৪ উইকেট শিকার করে ম্যাচসেরা হয় জাম্পা। এছাড়া দুটি করে উইকেট পান হ্যাজলউড ও স্টয়নিস। নামিবিয়ার হয়ে ওয়ার্নারের উইকেটটি নেন ডেভিড ওয়েজে।

মাত্র ৩৪ বলেই ম্যাচ জিতে সুপার এইটে অস্ট্রেলিয়া

আপডেট সময় : ০২:৩৩:২৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ জুন ২০২৪

অ্যাডাম জাম্পা, জস হ্যাজেলউড এবং মার্কাস স্টয়নিসরা মাত্র ৭২ রানে নামিবিয়াকে আউট করে। ব্যাট করতে নেমে নামিবিয়ার বোলারদের বেদম পিটিয়ে মাত্র ৩৪ (৫.৪ ওভার) বলে ৯ উইকেটের জয় তুলে নিয়েছে ডেভিড ওয়ার্নার, ট্রাভিস হেড ও অধিনায়ক মিচেল মার্শ। ৩ ম্যাচের ৩টিতেই জিতে বি-গ্রুপ থেকে সবার আগে সেরা আট একরকম নিশ্চিত করে ফেলেছে অস্ট্রেলিয়া।

নামিবিয়ার বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ার ৮৬ বল বাকি থাকতেই জয়টি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ইতিহাসে দ্বিতীয় দ্রুততম জয়। এর আগে ২০০৯ সালে, শ্রীলঙ্কা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দ্বিতীয় আসরে নেদারল্যান্ডসকে ৯০ বল হাতে রেখে হারিয়েছিল। সেটিও ৯ উইকেটের জয় ছিল।

আজ বুধবার ভোরে (বাংলাদেশ সময়) অ্যান্টিগুয়ার স্যার ভিভিয়ান রিচার্ডস স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে হ্যাজলউড ও প্যাট কামিন্সের তোপের মুখে মাত্র ২১ রানের মাথায় ৫ উইকেট হারায় নামিবিয়া।

দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৬ রান করেন অধিনায়ক গেরহাস ইরাসমাস। আর মাইকেল ফন লিংজেন করেন ১০ রান। বাকিদের কেউই দুই অঙ্কের ঘর ছুঁতে পারেনি। আফ্রিকান দেশটি ১৭ ওভারে ৭২ রানে গুটিয়ে যায়।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে মাত্র ১২ রান খরচায় ৪ উইকেট শিকার করে ম্যাচসেরা হয় জাম্পা। এছাড়া দুটি করে উইকেট পান হ্যাজলউড ও স্টয়নিস। নামিবিয়ার হয়ে ওয়ার্নারের উইকেটটি নেন ডেভিড ওয়েজে।