ঢাকা ০৫:৫৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মাছ ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা মামলায় একজনের যাবজ্জীবন

বাংলাদেশ কণ্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় : ০৭:২৪:৫৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ৩৮ বার পঠিত

তারেক পাঠান, নরসিংদী প্রতিনিধি :

নরসিংদী শহরের বড় বাজারে অনিল চন্দ্র বর্মণ (৩০) নামের এক মাছ ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা মামলায় এক আসামীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। একই সাথে ২০ হাজার টাকা অর্থদন্ড অনাদায়ে আরো ১ বছর বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে।

আজ দুপুরে নরসিংদীর অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ৩য় আদালতের বিচারক আ ন ম ইলিয়াছ এ রায় প্রদান করেন বলে নিশ্চিত করেছেন রাস্ট্র পক্ষের আইনজীবী এম. কেরামত আলী আকন্দ। সাজাপ্রাপ্ত অজিত চন্দ্র দাস সদর উপজেলার হাজীপুর গ্রামের মৃত গোপাল দাসের ছেলে।

মামলার তথ্যের বরাতে জানা যায়, মাছ ব্যবসা নিয়া শত্রুতার জেরে ২০১৫ সালের ২৯ মার্চ সকাল সাড়ে ৮টার দিকে নরসিংদী বড় বাজারের মাছপট্টিতে অজিত চন্দ্র বর্মণসহ কমল বর্মণ ও ধনা দাস নামের আরও ২ জন অনিল চন্দ্রকে (৩০) কুপিয়ে হত্যা করে পালিয়ে যায়। এঘটনায় নিহত অনিল চন্দ্র বর্মণের মা জলদা বর্মণ বাদী হয়ে ৩ জনকে আসামী করে সদর থানায় হত্যা মামলা করেন।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আসামী অজিত চন্দ্র দাসকে অভিযুক্ত করে এবং অপর ২ আসামীকে অব্যাহতির আবেদন জানিয়ে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। এ মামলায় অভিযোগপত্র গ্রহণ করে এবং ১১ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ৩য় আদালতের বিচারক আ.ন.ম. ইলিয়াস আসামী অজিত চন্দ্র দাসকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে আরো ১ বছর বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন।

আসামী অজিত চন্দ্র দাস দীর্ঘদিন যাবত জেল হাজতে রয়েছে বলেও জানা যায় ।

মাছ ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা মামলায় একজনের যাবজ্জীবন

আপডেট সময় : ০৭:২৪:৫৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

তারেক পাঠান, নরসিংদী প্রতিনিধি :

নরসিংদী শহরের বড় বাজারে অনিল চন্দ্র বর্মণ (৩০) নামের এক মাছ ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা মামলায় এক আসামীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। একই সাথে ২০ হাজার টাকা অর্থদন্ড অনাদায়ে আরো ১ বছর বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে।

আজ দুপুরে নরসিংদীর অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ৩য় আদালতের বিচারক আ ন ম ইলিয়াছ এ রায় প্রদান করেন বলে নিশ্চিত করেছেন রাস্ট্র পক্ষের আইনজীবী এম. কেরামত আলী আকন্দ। সাজাপ্রাপ্ত অজিত চন্দ্র দাস সদর উপজেলার হাজীপুর গ্রামের মৃত গোপাল দাসের ছেলে।

মামলার তথ্যের বরাতে জানা যায়, মাছ ব্যবসা নিয়া শত্রুতার জেরে ২০১৫ সালের ২৯ মার্চ সকাল সাড়ে ৮টার দিকে নরসিংদী বড় বাজারের মাছপট্টিতে অজিত চন্দ্র বর্মণসহ কমল বর্মণ ও ধনা দাস নামের আরও ২ জন অনিল চন্দ্রকে (৩০) কুপিয়ে হত্যা করে পালিয়ে যায়। এঘটনায় নিহত অনিল চন্দ্র বর্মণের মা জলদা বর্মণ বাদী হয়ে ৩ জনকে আসামী করে সদর থানায় হত্যা মামলা করেন।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আসামী অজিত চন্দ্র দাসকে অভিযুক্ত করে এবং অপর ২ আসামীকে অব্যাহতির আবেদন জানিয়ে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। এ মামলায় অভিযোগপত্র গ্রহণ করে এবং ১১ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ৩য় আদালতের বিচারক আ.ন.ম. ইলিয়াস আসামী অজিত চন্দ্র দাসকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে আরো ১ বছর বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন।

আসামী অজিত চন্দ্র দাস দীর্ঘদিন যাবত জেল হাজতে রয়েছে বলেও জানা যায় ।