ঢাকা ০৭:২৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo নরসিংদীতে সংবর্ধনা নেওয়ার সময় ভূয়া ম্যাজিস্ট্রেট আটক, তিন মাসের সাজা Logo দেশের বাজারে বয়া এর নতুন অল ইন ওয়ান ওয়ারলেস মাইক্রোফোন Logo সাড়ে চারশ কোটির হীরার নেকলেসে নজর কাড়লেন প্রিয়াঙ্কা Logo  পৃথিবীতে কোন দেশের মেয়েরা সবচেয়ে বেশি সুন্দরী Logo বাংলাদেশ ব্যাংকে সাংবাদিক প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেশের গণতন্ত্র-মৌলিক অধিকারের পরিপন্থী Logo ঈদের সময় ১১ দিন বাল্কহেড চলাচল বন্ধ Logo বিএসআরএফ বার্তা’র মোড়ক উম্মোচন করলেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী Logo টানা ছয় ম্যাচ জিতে প্লে অফ নিশ্চিত করলেও শেষমেশ বিদায় নিলো বেঙ্গালুরু Logo গাজায় মসজিদে ইসরায়েলি হামলা, ১০ শিশুসহ নিহত ১৬ Logo এমপি আনোয়ারুল হত্যাকাণ্ড: ঢাকায় আসছে ভারতীয় পুলিশের স্পেশাল টিম

ভুল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যু হওয়ায় স্বজনদের বিক্ষোভ ও মানববন্ধন

বাংলাদেশ কণ্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় : ০৫:১৬:১২ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মার্চ ২০২৩ ১৬ বার পঠিত

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় ইশতিয়াক আহমেদ ইকরাম (২২) নামে এক কলেজ ছাত্রের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। আজ সকালে জেলা শহরের পুরাতন জেল রোড এলাকার আল খলিল হসপিটাল অ্যান্ড ডায়গনস্টিক সেন্টারে এ ঘটনা ঘটে।
মৃত ইকরাম সদর উপজেলার বুধল ইউনিয়নের চান্দিয়ারা গ্রামের শহীদ উদ্দিনের ছেলে। তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর ডিগ্রি কলেজের অর্নাস দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র। এদিকে ভুল চিকিৎিসায় সহপাঠির মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাবের সামনে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেন ইশতিয়াকের সহপাঠিরা। তারা এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করনে।
মৃতের স্বজনরা জানিয়েছেন, শুক্রবার সকালে ইশতিয়াক কে নাকের পলিপাস অপারেশনের জন্য আল খলিল হসপিটাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ভর্তি করা হয়। এরপর দুপুরে তাকে অপারেশন থিয়েটারে নেয়ার পর তার আর জ্ঞান ফিরেনি। পরে তাকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া আইসি ইউ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে আজ সকালে তার মৃত্যু হয়।
ইশতিয়াকের চাচা শিক্ষানবিশ এডভোকেট শামছুল ইসলাম জানান, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে তার অপারেশন করেছেন ডা. রফিউল আলম। কিন্তু রফিউল জানিয়েছেন তিনি অপারেশন করেননি। ইশতিয়াকের সঠিক চিকিৎসা হয়নি। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবহেলা এবং ভুল চিকিৎসায় তার মৃত্যু হয়েছে।
আল খলিল হসপিটাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের মালিক মো: মানিক বলেন, হাসপাতালে কোন ভুল চিকিৎসা হয়নি। অপারেশন করেছেন ডা. রফিউল আলম কিন্ত রফিউল জানিয়েছেন তিনি অপারেশন করেননি। এমন প্রশ্নে তিনি জানান, হাসপাতালের সিসি ক্যামেরা আছে সব ভিডিও আছে বলে তিনি কল কেটে দেন। এ ব্যাপারে ডা. রফিউল আলম এর মোবাইলে একাধিকবার কল দিলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমরানুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় হাসপাতালের মো: জয়, নাজমুল শাকিব ও রফিউল ইসলাম নামের তিনজনকে আটক করা হয়ছে। অভিযোগের ভিত্তিতে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও ওসি জানিয়েছেন।

ভুল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যু হওয়ায় স্বজনদের বিক্ষোভ ও মানববন্ধন

আপডেট সময় : ০৫:১৬:১২ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মার্চ ২০২৩

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় ইশতিয়াক আহমেদ ইকরাম (২২) নামে এক কলেজ ছাত্রের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। আজ সকালে জেলা শহরের পুরাতন জেল রোড এলাকার আল খলিল হসপিটাল অ্যান্ড ডায়গনস্টিক সেন্টারে এ ঘটনা ঘটে।
মৃত ইকরাম সদর উপজেলার বুধল ইউনিয়নের চান্দিয়ারা গ্রামের শহীদ উদ্দিনের ছেলে। তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর ডিগ্রি কলেজের অর্নাস দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র। এদিকে ভুল চিকিৎিসায় সহপাঠির মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাবের সামনে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেন ইশতিয়াকের সহপাঠিরা। তারা এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করনে।
মৃতের স্বজনরা জানিয়েছেন, শুক্রবার সকালে ইশতিয়াক কে নাকের পলিপাস অপারেশনের জন্য আল খলিল হসপিটাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ভর্তি করা হয়। এরপর দুপুরে তাকে অপারেশন থিয়েটারে নেয়ার পর তার আর জ্ঞান ফিরেনি। পরে তাকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া আইসি ইউ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে আজ সকালে তার মৃত্যু হয়।
ইশতিয়াকের চাচা শিক্ষানবিশ এডভোকেট শামছুল ইসলাম জানান, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে তার অপারেশন করেছেন ডা. রফিউল আলম। কিন্তু রফিউল জানিয়েছেন তিনি অপারেশন করেননি। ইশতিয়াকের সঠিক চিকিৎসা হয়নি। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবহেলা এবং ভুল চিকিৎসায় তার মৃত্যু হয়েছে।
আল খলিল হসপিটাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের মালিক মো: মানিক বলেন, হাসপাতালে কোন ভুল চিকিৎসা হয়নি। অপারেশন করেছেন ডা. রফিউল আলম কিন্ত রফিউল জানিয়েছেন তিনি অপারেশন করেননি। এমন প্রশ্নে তিনি জানান, হাসপাতালের সিসি ক্যামেরা আছে সব ভিডিও আছে বলে তিনি কল কেটে দেন। এ ব্যাপারে ডা. রফিউল আলম এর মোবাইলে একাধিকবার কল দিলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমরানুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় হাসপাতালের মো: জয়, নাজমুল শাকিব ও রফিউল ইসলাম নামের তিনজনকে আটক করা হয়ছে। অভিযোগের ভিত্তিতে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও ওসি জানিয়েছেন।