ঢাকা ০৪:০২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরে জি-২০ বৈঠক বয়কট করলো ৪টি দেশ

বাংলাদেশ কণ্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় : ০২:১৮:০৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ মে ২০২৩ ২৩ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিনিধি:
ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে জি-২০ বৈঠক বয়কট করেছে ৪টি দেশ। চীন আগেই জানিয়েছিল, পরে সৌদি আরব, তুরস্ক এবং মিশরও কাশ্মীরে জি-২০ বৈঠক বয়কট করেছে। যা নিয়ে শুরু হয়েছে নতুন বিতর্ক। ভারত এই বছর জি-২০ শীর্ষ সম্মেলনের সভাপতি।

সেই উপলক্ষ্যে দেশের বিভিন্ন স্থানে শুরু হয়েছে ‘জি-২০ প্রস্তুতি সভা’। এতে অংশ নিচ্ছেন জি-২০ দেশগুলোর প্রতিনিধিরা। সেপ্টেম্বরে বিশ্ব নেতারা ভারতে আসবেন বৈঠকে যোগ দিতে। কিন্তু তার আগেই তৈরি হল নতুন বিতর্ক।

কাশ্মীরে অনুষ্ঠিত বৈঠকে মোট চারটি দেশ যোগ দিতে অস্বীকৃতি জানায়। চীন আগেই বলেছিল যে তারা কাশ্মীরে আয়োজিত কোনো বৈঠকে অংশ নেবে না। শেষ মুহূর্তে তারা তাদের প্রতিনিধিদের প্রত্যাহার করে নেয়। এর আগে চীনও অরুণাচলের বৈঠকে যোগ দিতে আপত্তি জানিয়েছিল।

এরপর একে একে আরও তিনটি দেশ কাশ্মীর বৈঠকে যোগ দিতে অস্বীকার করে। ২২ থেকে ২৪ মে কাশ্মীরের শ্রীনগরে জি-২০ প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছিল। চীনের পর, তুর্কিও জানিয়েছে যে তারা বৈঠকে অংশ নেবে না।

এরপর সৌদি আরব ও মিশরও কাশ্মীর সম্মেলনে যোগ দিতে অস্বীকৃতি জানায়। সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে জানতে চাইলে ভারতীয় প্রতিনিধি মেজাজ হারিয়ে ফেলেন বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে। এক ফরাসি সাংবাদিক এই প্রশ্ন করেছেন বলে জানা গেছে। বৈঠকটি ছিল মূলত শ্রীনগরের পর্যটন নিয়ে।

শেষ পর্যন্ত, ১৬টি দেশের ৬০ জন প্রতিনিধি সম্মেলনে অংশ নেন। চারটি দেশের একজন প্রতিনিধিও অংশ নেননি। এদিকে, কাশ্মীরে জি-২০সম্মেলন আয়োজন নিয়ে নানা জটিলতা দেখা দিয়েছে। গুলমার্গেও বৈঠকের আয়োজন করা হবে বলে প্রাথমিকভাবে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল।

এরপর সৌদি আরব ও মিশরও কাশ্মীর সম্মেলনে যোগ দিতে অস্বীকৃতি জানায়।
শ্রীনগর থেকে গুলমার্গের দূরত্ব প্রায় ৭০ কিলোমিটার। পাহাড়ি গুলমার্গ ভেন্যু শেষ মুহূর্তে বাতিল করা হয়। প্রকাশ্যে না বললেও সূত্র বলছে, নিরাপত্তার কারণে জায়গাটি বাতিল করা হয়েছে। শ্রীনগরে সব মিটিং হয়েছে।

ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরে জি-২০ বৈঠক বয়কট করলো ৪টি দেশ

আপডেট সময় : ০২:১৮:০৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ মে ২০২৩

নিজস্ব প্রতিনিধি:
ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে জি-২০ বৈঠক বয়কট করেছে ৪টি দেশ। চীন আগেই জানিয়েছিল, পরে সৌদি আরব, তুরস্ক এবং মিশরও কাশ্মীরে জি-২০ বৈঠক বয়কট করেছে। যা নিয়ে শুরু হয়েছে নতুন বিতর্ক। ভারত এই বছর জি-২০ শীর্ষ সম্মেলনের সভাপতি।

সেই উপলক্ষ্যে দেশের বিভিন্ন স্থানে শুরু হয়েছে ‘জি-২০ প্রস্তুতি সভা’। এতে অংশ নিচ্ছেন জি-২০ দেশগুলোর প্রতিনিধিরা। সেপ্টেম্বরে বিশ্ব নেতারা ভারতে আসবেন বৈঠকে যোগ দিতে। কিন্তু তার আগেই তৈরি হল নতুন বিতর্ক।

কাশ্মীরে অনুষ্ঠিত বৈঠকে মোট চারটি দেশ যোগ দিতে অস্বীকৃতি জানায়। চীন আগেই বলেছিল যে তারা কাশ্মীরে আয়োজিত কোনো বৈঠকে অংশ নেবে না। শেষ মুহূর্তে তারা তাদের প্রতিনিধিদের প্রত্যাহার করে নেয়। এর আগে চীনও অরুণাচলের বৈঠকে যোগ দিতে আপত্তি জানিয়েছিল।

এরপর একে একে আরও তিনটি দেশ কাশ্মীর বৈঠকে যোগ দিতে অস্বীকার করে। ২২ থেকে ২৪ মে কাশ্মীরের শ্রীনগরে জি-২০ প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছিল। চীনের পর, তুর্কিও জানিয়েছে যে তারা বৈঠকে অংশ নেবে না।

এরপর সৌদি আরব ও মিশরও কাশ্মীর সম্মেলনে যোগ দিতে অস্বীকৃতি জানায়। সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে জানতে চাইলে ভারতীয় প্রতিনিধি মেজাজ হারিয়ে ফেলেন বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে। এক ফরাসি সাংবাদিক এই প্রশ্ন করেছেন বলে জানা গেছে। বৈঠকটি ছিল মূলত শ্রীনগরের পর্যটন নিয়ে।

শেষ পর্যন্ত, ১৬টি দেশের ৬০ জন প্রতিনিধি সম্মেলনে অংশ নেন। চারটি দেশের একজন প্রতিনিধিও অংশ নেননি। এদিকে, কাশ্মীরে জি-২০সম্মেলন আয়োজন নিয়ে নানা জটিলতা দেখা দিয়েছে। গুলমার্গেও বৈঠকের আয়োজন করা হবে বলে প্রাথমিকভাবে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল।

এরপর সৌদি আরব ও মিশরও কাশ্মীর সম্মেলনে যোগ দিতে অস্বীকৃতি জানায়।
শ্রীনগর থেকে গুলমার্গের দূরত্ব প্রায় ৭০ কিলোমিটার। পাহাড়ি গুলমার্গ ভেন্যু শেষ মুহূর্তে বাতিল করা হয়। প্রকাশ্যে না বললেও সূত্র বলছে, নিরাপত্তার কারণে জায়গাটি বাতিল করা হয়েছে। শ্রীনগরে সব মিটিং হয়েছে।