ঢাকা ১১:২৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া ছুরিকাঘাতে তরুন খুন

বাংলাদেশ কণ্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় : ০৬:০২:১৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মার্চ ২০২৩ ১২ বার পঠিত

মনিরুজ্জামান মনির, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি:
ছুরিকাঘাতে রনি নামের এক তরুণ হত্যার অভিযোগে রাজু (২২) নামের আরেক তরুনকে আটক করেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানা পুলিশ।আজ সকাল ৭টার দিকে সদর উপজেলার সাদেকপুর ইউনিয়নের গাছতলা এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানার ওসি মোহাম্মদ এমরানুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। নিহত রনি ঢালী পৌর শহরের ভাদুঘর এলাকার মানিক ঢালীর ছেলে।
আটক রাজু পৌর এলাকার ভাদুঘরের সাঈদ মিয়ার ছেলে। এ সময় হত্যায় ব্যবহৃত ছুরিটি জব্দ করা হয়। এর আগে গতকাল রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার রামরাইল ইউনিয়নের বিয়াল্লিশর এলাকায় রনি ঢালী নামের এক তরুণকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায় রাজু। পরে হাসপাতালে তাকে নিয়ে গেলে রনিকে মৃত ঘোষনা করে কর্তব্যরত চিকিৎসক। নিহতের স্বজনদের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, শনিবার বিকেলের পর রনি বাড়ি থেকে বের হয়ে যায়। রাতে রনি তার বন্ধু ভাদুঘর এলাকার রাজুর সঙ্গে বিয়াল্লিশ্বর এলাকায় একটি নির্জন কাঠ বাগানের পাশে একটি মসজিদের কোনায় অবস্থান করছিলেন। এরই মাঝে কোনো একটি বিষয় নিয়ে রনিকে ছুরিকাঘাত করে রাজু পালিয়ে যায়। ছুরিকাঘাতে আহত রনিকে তার আরেক বন্ধু শুভ উদ্ধার করে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসে। এর কিছুক্ষণ পর মারা যায় রনি। শুভ হাসপাতালে পুলিশকে জানায়, রনি ফোন দিয়েছিল তাকে। তারপর সে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখে রনি ছুরিকাঘাতে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছে। পরে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসে। ওসি মোহাম্মদ এমরানুল ইসলাম জানান, ঘটনা ঘটার ১২ ঘণ্টার মধ্যে রাজুকে আটক করতে পুলিশ সক্ষম হয়েছে। সে তার আত্মীয়ের বাড়িতে আত্মগোপনে ছিল। রাজু কে এখনো জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়নি। তাকে জিজ্ঞাসাবাদের পর জানা যাবে কি কারণে রনিকে সে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করেছে।এর পরই মুল রহস্য উদঘাটন হবে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া ছুরিকাঘাতে তরুন খুন

আপডেট সময় : ০৬:০২:১৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মার্চ ২০২৩

মনিরুজ্জামান মনির, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি:
ছুরিকাঘাতে রনি নামের এক তরুণ হত্যার অভিযোগে রাজু (২২) নামের আরেক তরুনকে আটক করেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানা পুলিশ।আজ সকাল ৭টার দিকে সদর উপজেলার সাদেকপুর ইউনিয়নের গাছতলা এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানার ওসি মোহাম্মদ এমরানুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। নিহত রনি ঢালী পৌর শহরের ভাদুঘর এলাকার মানিক ঢালীর ছেলে।
আটক রাজু পৌর এলাকার ভাদুঘরের সাঈদ মিয়ার ছেলে। এ সময় হত্যায় ব্যবহৃত ছুরিটি জব্দ করা হয়। এর আগে গতকাল রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার রামরাইল ইউনিয়নের বিয়াল্লিশর এলাকায় রনি ঢালী নামের এক তরুণকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায় রাজু। পরে হাসপাতালে তাকে নিয়ে গেলে রনিকে মৃত ঘোষনা করে কর্তব্যরত চিকিৎসক। নিহতের স্বজনদের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, শনিবার বিকেলের পর রনি বাড়ি থেকে বের হয়ে যায়। রাতে রনি তার বন্ধু ভাদুঘর এলাকার রাজুর সঙ্গে বিয়াল্লিশ্বর এলাকায় একটি নির্জন কাঠ বাগানের পাশে একটি মসজিদের কোনায় অবস্থান করছিলেন। এরই মাঝে কোনো একটি বিষয় নিয়ে রনিকে ছুরিকাঘাত করে রাজু পালিয়ে যায়। ছুরিকাঘাতে আহত রনিকে তার আরেক বন্ধু শুভ উদ্ধার করে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসে। এর কিছুক্ষণ পর মারা যায় রনি। শুভ হাসপাতালে পুলিশকে জানায়, রনি ফোন দিয়েছিল তাকে। তারপর সে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখে রনি ছুরিকাঘাতে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছে। পরে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসে। ওসি মোহাম্মদ এমরানুল ইসলাম জানান, ঘটনা ঘটার ১২ ঘণ্টার মধ্যে রাজুকে আটক করতে পুলিশ সক্ষম হয়েছে। সে তার আত্মীয়ের বাড়িতে আত্মগোপনে ছিল। রাজু কে এখনো জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়নি। তাকে জিজ্ঞাসাবাদের পর জানা যাবে কি কারণে রনিকে সে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করেছে।এর পরই মুল রহস্য উদঘাটন হবে।