ঢাকা ১০:৪২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে গুচ্ছে থাকতে রাষ্ট্রপতির নির্দেশ

বাংলাদেশ কণ্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় : ০৩:৫৭:৪৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৩ ১৯ বার পঠিত

সাকিবুল ইসলাম, জবি প্রতিনিধি:
গুচ্ছভুক্ত সকল বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর অংশগ্রহণে ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষা কার্যক্রম সম্পন্ন করার অভিপ্রায় জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি ও আচার্য মো. আব্দুল হামিদ। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণের জন্য বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনকে (ইউজিসি) দায়িত্ব প্রদান করা হয়েছে।
আজ শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের যুগ্ম সচিব মো. মাহমুদুল আলম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানান, রাষ্ট্রপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের চ্যান্সেলর এর অভিপ্রায় অনুযায়ী বিগত সময়ে যে সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় যুক্ত ছিল তাদের অংশগ্রহণে ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষে গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা কার্যক্রম সম্পন্ন করার এবং ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষ হতে সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়কে একক ভর্তি পরীক্ষার আওতায় নেয়ার প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণের জন্য বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনকে দায়িত্ব প্রদান করা হয়েছে।
এদিকে গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে একাডেমিক কাউন্সিলের মাধ্যমে গুচ্ছ থেকে বের হয়ে নিজস্ব পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ও ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়। ইতোমধ্যে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় নিজস্ব পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণের জন্য ভর্তি বিজ্ঞপ্তিও প্রকাশ করেছে। এদিকে নিজস্ব পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণের লক্ষ্যে কেন্দ্রীয় ভর্তি কমিটির সভা আহবান করে ১৭ এপ্রিলের মধ্যে ভর্তি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের দাবি জানিয়েছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি।
এবিষয়ে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা কমিটি যুগ্ম আহবায়ক ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. ইমদাদুল হক বলেন, ‘রাষ্ট্রপতির সিদ্ধান্তের উপরে তো আর কিছু নেই৷আমাদের আইনেও আছে যে ওনার অভিপ্রায় শিরোধার্য। আমাদের শিক্ষকদের এই আদেশকে সম্মান জানানো উচিত। আর এক বছরের জন্যই তো, পরের বছর সব একসাথেই হবে। সেই হিসেবে শিক্ষকরা বিষয়টা ভালোভাবে গ্রহণ করবে বলে আশা রাখছি।
বর্তমানে দেশে ৫৩টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় এবং ১১০টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে। বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে আলাদাভাবে ভর্তি করা হয়। পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে ঢাকা, রাজশাহী, চট্টগ্রাম, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়সহ (বুয়েট) কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ে আলাদা ভর্তি পরীক্ষা হয়।
এদিকে ২২টি সাধারণ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় একটি গুচ্ছভুক্ত হয়ে, তিনটি প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট, কুয়েট ও রুয়েট) আরেকটি গুচ্ছে এবং কৃষি ও কৃষিশিক্ষাপ্রধান সাতটি বিশ্ববিদ্যালয় অপর একটি গুচ্ছুভুক্ত হয়ে ভর্তি পরীক্ষা নিচ্ছে।

বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে গুচ্ছে থাকতে রাষ্ট্রপতির নির্দেশ

আপডেট সময় : ০৩:৫৭:৪৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৩

সাকিবুল ইসলাম, জবি প্রতিনিধি:
গুচ্ছভুক্ত সকল বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর অংশগ্রহণে ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষা কার্যক্রম সম্পন্ন করার অভিপ্রায় জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি ও আচার্য মো. আব্দুল হামিদ। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণের জন্য বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনকে (ইউজিসি) দায়িত্ব প্রদান করা হয়েছে।
আজ শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের যুগ্ম সচিব মো. মাহমুদুল আলম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানান, রাষ্ট্রপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের চ্যান্সেলর এর অভিপ্রায় অনুযায়ী বিগত সময়ে যে সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় যুক্ত ছিল তাদের অংশগ্রহণে ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষে গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা কার্যক্রম সম্পন্ন করার এবং ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষ হতে সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়কে একক ভর্তি পরীক্ষার আওতায় নেয়ার প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণের জন্য বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনকে দায়িত্ব প্রদান করা হয়েছে।
এদিকে গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে একাডেমিক কাউন্সিলের মাধ্যমে গুচ্ছ থেকে বের হয়ে নিজস্ব পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ও ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়। ইতোমধ্যে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় নিজস্ব পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণের জন্য ভর্তি বিজ্ঞপ্তিও প্রকাশ করেছে। এদিকে নিজস্ব পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণের লক্ষ্যে কেন্দ্রীয় ভর্তি কমিটির সভা আহবান করে ১৭ এপ্রিলের মধ্যে ভর্তি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের দাবি জানিয়েছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি।
এবিষয়ে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা কমিটি যুগ্ম আহবায়ক ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. ইমদাদুল হক বলেন, ‘রাষ্ট্রপতির সিদ্ধান্তের উপরে তো আর কিছু নেই৷আমাদের আইনেও আছে যে ওনার অভিপ্রায় শিরোধার্য। আমাদের শিক্ষকদের এই আদেশকে সম্মান জানানো উচিত। আর এক বছরের জন্যই তো, পরের বছর সব একসাথেই হবে। সেই হিসেবে শিক্ষকরা বিষয়টা ভালোভাবে গ্রহণ করবে বলে আশা রাখছি।
বর্তমানে দেশে ৫৩টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় এবং ১১০টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে। বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে আলাদাভাবে ভর্তি করা হয়। পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে ঢাকা, রাজশাহী, চট্টগ্রাম, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়সহ (বুয়েট) কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ে আলাদা ভর্তি পরীক্ষা হয়।
এদিকে ২২টি সাধারণ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় একটি গুচ্ছভুক্ত হয়ে, তিনটি প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট, কুয়েট ও রুয়েট) আরেকটি গুচ্ছে এবং কৃষি ও কৃষিশিক্ষাপ্রধান সাতটি বিশ্ববিদ্যালয় অপর একটি গুচ্ছুভুক্ত হয়ে ভর্তি পরীক্ষা নিচ্ছে।