ঢাকা ০৬:৩৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বার্ন ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন ১০ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক

বাংলাদেশ কণ্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় : ১২:২৫:৪১ অপরাহ্ন, বুধবার, ৮ মার্চ ২০২৩ ৮ বার পঠিত

গুলিস্তানের সিদ্দিকবাজারে একটি ভবনে বিস্ফোরণে আহতদের মধ্যে ১০ জন শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন। তাদের সবার অবস্থাই আশঙ্কাজনক।

বুধবার (৮ মার্চ) সকালে গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়েছেন বার্ন ইনস্টিটিউটের সমন্বয়ক অধ্যাপক ডা. সামন্ত লাল সেন।

তিনি জানান, ১০ জনের মধ্যে ২ জন নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন। তাদের অবস্থা অনেক বেশি আশঙ্কাজনক।

মঙ্গলবার (৭ মার্চ) বিকেলে রাজধানীর গুলিস্তানের এক পাঁচ তলা ভবনে বিস্ফোরণের এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় নিহত হয়েছেন ১৯ জন। এছাড়া আহত হয়েছেন দুই শতাধিক।

এদিকে গুলিস্তানের সিদ্দিকবাজারে বিস্ফোরণ হওয়া ভবনটিতে দ্বিতীয় দিনের মতো উদ্ধার অভিযান চলাচ্ছে সেনাবাহিনীর সদস্যরা। আজ বুধবার সকালে সেনা সদস্যদের নেতৃত্বে এই অভিযান শুরু হয় বলে জানিয়েছেন ফায়ার সার্ভিসের ঢাকা বিভাগীয় উপপরিচালক দীনমনি শর্মা।

অভিযান শুরুর পর ধসে যাওয়া ভবনের নিচের মালামাল সরাতে শুরু করেন ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা। উদ্ধার কাজের জন্য ঘটনাস্থল এবং আশপাশে যান চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে।

ট্যাগস :

বার্ন ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন ১০ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক

আপডেট সময় : ১২:২৫:৪১ অপরাহ্ন, বুধবার, ৮ মার্চ ২০২৩

গুলিস্তানের সিদ্দিকবাজারে একটি ভবনে বিস্ফোরণে আহতদের মধ্যে ১০ জন শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন। তাদের সবার অবস্থাই আশঙ্কাজনক।

বুধবার (৮ মার্চ) সকালে গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়েছেন বার্ন ইনস্টিটিউটের সমন্বয়ক অধ্যাপক ডা. সামন্ত লাল সেন।

তিনি জানান, ১০ জনের মধ্যে ২ জন নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন। তাদের অবস্থা অনেক বেশি আশঙ্কাজনক।

মঙ্গলবার (৭ মার্চ) বিকেলে রাজধানীর গুলিস্তানের এক পাঁচ তলা ভবনে বিস্ফোরণের এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় নিহত হয়েছেন ১৯ জন। এছাড়া আহত হয়েছেন দুই শতাধিক।

এদিকে গুলিস্তানের সিদ্দিকবাজারে বিস্ফোরণ হওয়া ভবনটিতে দ্বিতীয় দিনের মতো উদ্ধার অভিযান চলাচ্ছে সেনাবাহিনীর সদস্যরা। আজ বুধবার সকালে সেনা সদস্যদের নেতৃত্বে এই অভিযান শুরু হয় বলে জানিয়েছেন ফায়ার সার্ভিসের ঢাকা বিভাগীয় উপপরিচালক দীনমনি শর্মা।

অভিযান শুরুর পর ধসে যাওয়া ভবনের নিচের মালামাল সরাতে শুরু করেন ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা। উদ্ধার কাজের জন্য ঘটনাস্থল এবং আশপাশে যান চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে।