ঢাকা ১০:০৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‘বাঙালির বীরত্বগাথা নিজেরাই সৃষ্টি করে’- উপাচার্য মশিউর

বাংলাদেশ কণ্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় : ০৭:০৯:১৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ মার্চ ২০২৩ ৯ বার পঠিত

গাজীপুর প্রতিনিধি :
বাঙালির বীরত্বগাথা নিজেরাই সৃষ্টি করে বলে মনে করেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. মশিউর রহমান। তিনি বলেন, ‘১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে সশস্ত্র সংগ্রামের মধ্য দিয়ে স্বাধীন সার্বভৌম দেশ পেয়েছি। ১৯৯৭ সালে তৃতীয় পক্ষের কোনো ধরনের মধ্যস্থতা ছাড়াই পার্বত্য শান্তি চুক্তি করেছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা। তাঁর নেতৃত্বেই আমাদের পদ্মাসেতু হয়েছে, সমুদ্র বিজয় হয়েছে। এসব অর্জনই বাঙালির বীরত্বগাথা।পৃথিবীতে এমন দৃষ্টান্ত বিরল।’ সোমবার বিকালে রাজধানীর তেজগাঁও কলেজে আয়োজিত প্রফেশনাল কোর্সের (অনার্স ও মাস্টার্স) ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন উপাচার্য ড. মশিউর রহমান। দেশের প্রথিতযশা সমাজবিজ্ঞানী ড. মশিউর রহমান বলেন, ‘আমাদের শিক্ষার্থীরা চায় তাদের সর্বোচ্চ দিয়ে দেশের সেবা করতে। আমরাও তাদের মধ্যে দেশপ্রেম ও মূল্যবোধ প্রদানের চেষ্টা করি। আমাদের পূর্বপ্রজন্ম যারা দেশ স্বাধীনের জন্য জীবন দিয়েছেন, তাঁরা এটাই চেয়েছিলেন যে, আধুনিক প্রজন্ম একটি সুন্দর দেশ পাবে। নিজেকে নিয়ে ছোট বা হীনমন্যতায় ভোগা যাবে না। মেধার দৌঁড়ে যদি পিছিয়েও যাও, জীবনের দৌঁড়ে অনেক বেশি এগিয়ে যাওয়াই হবে মূল চ্যালেঞ্জ।’
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন, জাতীয়,প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক ভোরের কাগজের সম্পাদক শ্যামল দত্ত। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বিমানের চেয়ারম্যান মোস্তফা কামাল উদ্দিন, তেজগাঁও কলেজের গভর্নিং বডির সভাপতি ড. খন্দকার বজলুল হক, তেজগাঁও কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর হারুন-অর-রশিদ প্রমুখ। এ সময় বিবিএ, সিএসই, ট্যুরিজম এন্ড হসপিটালিটি ও থিয়েটার এন্ড মিডিয়া স্টাডিজের শিক্ষার্থীর সাংস্কৃতিক পরিবেশনা উপস্থাপন করেন।

‘বাঙালির বীরত্বগাথা নিজেরাই সৃষ্টি করে’- উপাচার্য মশিউর

আপডেট সময় : ০৭:০৯:১৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ মার্চ ২০২৩

গাজীপুর প্রতিনিধি :
বাঙালির বীরত্বগাথা নিজেরাই সৃষ্টি করে বলে মনে করেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. মশিউর রহমান। তিনি বলেন, ‘১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে সশস্ত্র সংগ্রামের মধ্য দিয়ে স্বাধীন সার্বভৌম দেশ পেয়েছি। ১৯৯৭ সালে তৃতীয় পক্ষের কোনো ধরনের মধ্যস্থতা ছাড়াই পার্বত্য শান্তি চুক্তি করেছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা। তাঁর নেতৃত্বেই আমাদের পদ্মাসেতু হয়েছে, সমুদ্র বিজয় হয়েছে। এসব অর্জনই বাঙালির বীরত্বগাথা।পৃথিবীতে এমন দৃষ্টান্ত বিরল।’ সোমবার বিকালে রাজধানীর তেজগাঁও কলেজে আয়োজিত প্রফেশনাল কোর্সের (অনার্স ও মাস্টার্স) ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন উপাচার্য ড. মশিউর রহমান। দেশের প্রথিতযশা সমাজবিজ্ঞানী ড. মশিউর রহমান বলেন, ‘আমাদের শিক্ষার্থীরা চায় তাদের সর্বোচ্চ দিয়ে দেশের সেবা করতে। আমরাও তাদের মধ্যে দেশপ্রেম ও মূল্যবোধ প্রদানের চেষ্টা করি। আমাদের পূর্বপ্রজন্ম যারা দেশ স্বাধীনের জন্য জীবন দিয়েছেন, তাঁরা এটাই চেয়েছিলেন যে, আধুনিক প্রজন্ম একটি সুন্দর দেশ পাবে। নিজেকে নিয়ে ছোট বা হীনমন্যতায় ভোগা যাবে না। মেধার দৌঁড়ে যদি পিছিয়েও যাও, জীবনের দৌঁড়ে অনেক বেশি এগিয়ে যাওয়াই হবে মূল চ্যালেঞ্জ।’
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন, জাতীয়,প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক ভোরের কাগজের সম্পাদক শ্যামল দত্ত। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বিমানের চেয়ারম্যান মোস্তফা কামাল উদ্দিন, তেজগাঁও কলেজের গভর্নিং বডির সভাপতি ড. খন্দকার বজলুল হক, তেজগাঁও কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর হারুন-অর-রশিদ প্রমুখ। এ সময় বিবিএ, সিএসই, ট্যুরিজম এন্ড হসপিটালিটি ও থিয়েটার এন্ড মিডিয়া স্টাডিজের শিক্ষার্থীর সাংস্কৃতিক পরিবেশনা উপস্থাপন করেন।