ঢাকা ০১:৪৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশ-ভারত আলোচনার মাধ্যমে অনেক সমস্যার সমাধান করেছে:প্রধানমন্ত্রী

বাংলাদেশ কণ্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় : ০২:০৬:১৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ জুলাই ২০২৪ ১৯ বার পঠিত

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ককে অন্যদের জন্য ‘মডেল’ এবং ‘উদাহরণ’ হিসেবে উল্লেখ করেছেন, কারণ উভয় দেশ আলোচনার মাধ্যমে অনেক সমস্যা সমাধান করেছে।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ ও ভারত আলোচনার মাধ্যমে অনেক সমস্যার সমাধান করেছে। এই সম্পর্ক অন্যান্য অনেক প্রতিবেশী দেশের জন্য একটি মডেল এবং উদাহরণ হতে পারে।

সফররত ভারতীয় নৌবাহিনী প্রধান অ্যাডমিরাল দীনেশ কে ত্রিপাঠি মঙ্গলবার (২ জুলাই) প্রধানমন্ত্রীর সংসদ ভবন কার্যালয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে এসব কথা বলেন।

বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব মো. নাঈমুল ইসলাম খান সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

উদাহরণ হিসেবে শেখ হাসিনা বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে স্থল সীমান্ত ও সমুদ্রসীমার রেজুলেশনের কথা উল্লেখ করেন।

তিনি বলেন, ‘এগুলো (সমাধান) একত্রিত করে এই উদাহরণ তৈরি করা হয়েছে।’

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে ভারতের অবদানের কথা স্মরণ করেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ‘আমরা আমাদের মুক্তিযুদ্ধে ভারতীয় জনগণের সহায়তা ও অবদান সবসময় স্মরণ করি।’

ভারতের নৌবাহিনী প্রধান অ্যাডমিরাল দীনেশ কে ত্রিপাঠি বলেন, তিনি বাংলাদেশে নিজের বাড়ির মতো অনুভব করছেন। কারণ, প্রকৃতিগত দিক থেকে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে সামান্য পার্থক্য রয়েছে।

উভয় দেশের নৌবাহিনীর মধ্যে সহযোগিতা সম্পর্কে অ্যাডমিরাল ত্রিপাঠি বলেন, ‘যদি বাংলাদেশ নৌবাহিনী কোনো সহযোগিতা চায়, তবে ভারতীয় নৌবাহিনীর কাছে বাংলাদেশ নৌবাহিনীকে না বলার কোনো সুযোগ নেই।’

ভারতীয় নৌবাহিনী প্রধান বাংলাদেশ সামরিক জাদুঘর (বিএমএম) পরিদর্শন করেন এবং এটিকে বিশ্বমানের বলে অভিহিত করেন।

বৈঠকে তিনি ধানমন্ডি ৩২-এ বঙ্গবন্ধু জাদুঘর পরিদর্শনের কথাও উল্লেখ করেন এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আত্মত্যাগ ও অবদানের প্রতিফলন দেখে মুগ্ধ হন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের উন্নয়নেরও প্রশংসা করেন ভারতীয় নৌবাহিনী প্রধান।

বাংলাদেশ-ভারত আলোচনার মাধ্যমে অনেক সমস্যার সমাধান করেছে:প্রধানমন্ত্রী

আপডেট সময় : ০২:০৬:১৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ জুলাই ২০২৪

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ককে অন্যদের জন্য ‘মডেল’ এবং ‘উদাহরণ’ হিসেবে উল্লেখ করেছেন, কারণ উভয় দেশ আলোচনার মাধ্যমে অনেক সমস্যা সমাধান করেছে।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ ও ভারত আলোচনার মাধ্যমে অনেক সমস্যার সমাধান করেছে। এই সম্পর্ক অন্যান্য অনেক প্রতিবেশী দেশের জন্য একটি মডেল এবং উদাহরণ হতে পারে।

সফররত ভারতীয় নৌবাহিনী প্রধান অ্যাডমিরাল দীনেশ কে ত্রিপাঠি মঙ্গলবার (২ জুলাই) প্রধানমন্ত্রীর সংসদ ভবন কার্যালয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে এসব কথা বলেন।

বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব মো. নাঈমুল ইসলাম খান সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

উদাহরণ হিসেবে শেখ হাসিনা বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে স্থল সীমান্ত ও সমুদ্রসীমার রেজুলেশনের কথা উল্লেখ করেন।

তিনি বলেন, ‘এগুলো (সমাধান) একত্রিত করে এই উদাহরণ তৈরি করা হয়েছে।’

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে ভারতের অবদানের কথা স্মরণ করেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ‘আমরা আমাদের মুক্তিযুদ্ধে ভারতীয় জনগণের সহায়তা ও অবদান সবসময় স্মরণ করি।’

ভারতের নৌবাহিনী প্রধান অ্যাডমিরাল দীনেশ কে ত্রিপাঠি বলেন, তিনি বাংলাদেশে নিজের বাড়ির মতো অনুভব করছেন। কারণ, প্রকৃতিগত দিক থেকে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে সামান্য পার্থক্য রয়েছে।

উভয় দেশের নৌবাহিনীর মধ্যে সহযোগিতা সম্পর্কে অ্যাডমিরাল ত্রিপাঠি বলেন, ‘যদি বাংলাদেশ নৌবাহিনী কোনো সহযোগিতা চায়, তবে ভারতীয় নৌবাহিনীর কাছে বাংলাদেশ নৌবাহিনীকে না বলার কোনো সুযোগ নেই।’

ভারতীয় নৌবাহিনী প্রধান বাংলাদেশ সামরিক জাদুঘর (বিএমএম) পরিদর্শন করেন এবং এটিকে বিশ্বমানের বলে অভিহিত করেন।

বৈঠকে তিনি ধানমন্ডি ৩২-এ বঙ্গবন্ধু জাদুঘর পরিদর্শনের কথাও উল্লেখ করেন এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আত্মত্যাগ ও অবদানের প্রতিফলন দেখে মুগ্ধ হন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের উন্নয়নেরও প্রশংসা করেন ভারতীয় নৌবাহিনী প্রধান।