ঢাকা ০৬:১৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পুলিশের গাড়ি ভাংচুরের ঘটনায় কলেজ অধ্যক্ষের জামিন, চারজন কারাগারে

বাংলাদেশ কণ্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় : ০৮:০৮:৫২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ১১ বার পঠিত

গাজীপুর প্রতিনিধি :
গাজীপুরে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মধ্যে পুলিশের গাড়ি ভাঙচুর ও সরকারি কাজে বাধা দেয়ার মামলায় গাজীপুরের সালনা নাসির উদ্দিন মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয় অ্যান্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নাজমা নাসরিনকে জামিন দিয়েছে আদালত। একই মামলায় অন্য চার আসামিকে আদালত কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে। তাদের প্রত্যেকের সাতদিন করে রিমান্ড আবেদন করা হয়েছিল। আদালত তাদের কারাফটকে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ দিয়েছে।
গতকাল বিকেলে গাজীপুর মহানগর মুখ্য বিচারিক হাকিম আদালতের বিচারক মো. কায়সারুল ইসলাম অধ্যক্ষের জামিন মঞ্জুর করেন বলে জানান মহানগর পুলিশের সহকারী কমিশনার (প্রসিকিউশন) আহসান উল্লাহ। অপর চারজন হলেন- গাজীপুর সদর উপজেলার কাউলতিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য মতিউর রহমান, তার সহযোগী মাকসুদুর রহমান, মোবারক হোসেন ও তামিম হোসেন তন্ময়।
মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে, নাসির উদ্দিন মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয় অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থীরা অধ্যক্ষের অন্যায় আচরণসহ নানা অভিযোগে এনে তার পদত্যাগের দাবিতে কয়েকদিন ধরেই আন্দোলন করছে। এরই ধারাবাহিকতায় শিক্ষার্থীরা মঙ্গলবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর সোয়া ১২টা পর্যন্ত কলেজ ক্যাম্পাস ও পাশের ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে বিক্ষোভ ও অবরোধ করে। এ সময় মহাসড়কের দুই পাশে যানচলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পাঁচ কিলোমিটার এলাকায় যানজট তৈরি হয়।
সড়ক অবরোধের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায় এবং তাদের বহনকারী পিকআপ গাড়িটি কলেজের মাঠে রাখে। একপর্যায়ে মহাসড়ক থেকে কিছু শিক্ষার্থী মাঠে থাকা পুলিশের গাড়িতে ইট-পাটকেল ছুড়ে এবং হামলা চালিয়ে গাড়ি ভাংচুর করে। এ সময়ে অধ্যক্ষ ও আওয়ামী লীগ নেতার উসকানিতে বহিরাগতরা পুলিশের সরকারি কাজে বাধা প্রদান ও পুলিশের পিকআপ ভাঙচুর করে।
গত মঙ্গলবার মধ্যরাতে এসআই উৎপল কুমার বাদী হয়ে ১০ জনের নামোল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও অনেককে আসামি করে মামলা করেন। পরে পাঁচজনকে গ্রেফতার দেখিয়ে পুলিশ আদালতে পাঠায়।

 

পুলিশের গাড়ি ভাংচুরের ঘটনায় কলেজ অধ্যক্ষের জামিন, চারজন কারাগারে

আপডেট সময় : ০৮:০৮:৫২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

গাজীপুর প্রতিনিধি :
গাজীপুরে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মধ্যে পুলিশের গাড়ি ভাঙচুর ও সরকারি কাজে বাধা দেয়ার মামলায় গাজীপুরের সালনা নাসির উদ্দিন মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয় অ্যান্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নাজমা নাসরিনকে জামিন দিয়েছে আদালত। একই মামলায় অন্য চার আসামিকে আদালত কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে। তাদের প্রত্যেকের সাতদিন করে রিমান্ড আবেদন করা হয়েছিল। আদালত তাদের কারাফটকে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ দিয়েছে।
গতকাল বিকেলে গাজীপুর মহানগর মুখ্য বিচারিক হাকিম আদালতের বিচারক মো. কায়সারুল ইসলাম অধ্যক্ষের জামিন মঞ্জুর করেন বলে জানান মহানগর পুলিশের সহকারী কমিশনার (প্রসিকিউশন) আহসান উল্লাহ। অপর চারজন হলেন- গাজীপুর সদর উপজেলার কাউলতিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য মতিউর রহমান, তার সহযোগী মাকসুদুর রহমান, মোবারক হোসেন ও তামিম হোসেন তন্ময়।
মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে, নাসির উদ্দিন মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয় অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থীরা অধ্যক্ষের অন্যায় আচরণসহ নানা অভিযোগে এনে তার পদত্যাগের দাবিতে কয়েকদিন ধরেই আন্দোলন করছে। এরই ধারাবাহিকতায় শিক্ষার্থীরা মঙ্গলবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর সোয়া ১২টা পর্যন্ত কলেজ ক্যাম্পাস ও পাশের ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে বিক্ষোভ ও অবরোধ করে। এ সময় মহাসড়কের দুই পাশে যানচলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পাঁচ কিলোমিটার এলাকায় যানজট তৈরি হয়।
সড়ক অবরোধের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায় এবং তাদের বহনকারী পিকআপ গাড়িটি কলেজের মাঠে রাখে। একপর্যায়ে মহাসড়ক থেকে কিছু শিক্ষার্থী মাঠে থাকা পুলিশের গাড়িতে ইট-পাটকেল ছুড়ে এবং হামলা চালিয়ে গাড়ি ভাংচুর করে। এ সময়ে অধ্যক্ষ ও আওয়ামী লীগ নেতার উসকানিতে বহিরাগতরা পুলিশের সরকারি কাজে বাধা প্রদান ও পুলিশের পিকআপ ভাঙচুর করে।
গত মঙ্গলবার মধ্যরাতে এসআই উৎপল কুমার বাদী হয়ে ১০ জনের নামোল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও অনেককে আসামি করে মামলা করেন। পরে পাঁচজনকে গ্রেফতার দেখিয়ে পুলিশ আদালতে পাঠায়।