ঢাকা ০৩:০৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দেশের নির্বাচন ব্যবস্থা নিয়ে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি সার্কাস খেলছে- জিএম কাদের

বাংলাদেশ কণ্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় : ০৩:৪৬:৩৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ মে ২০২৩ ২৩ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিনিধি:
আওয়ামী লীগ ও বিএনপি দেশের নির্বাচন ব্যবস্থা নিয়ে সার্কাস খেলছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ (জিএম) কাদের।

তিনি বলেন, নির্বাচন ব্যবস্থা প্রশ্নবিদ্ধ হলে গণতন্ত্র চর্চা অসম্ভব। আমরা চাই একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য নির্বাচনী ব্যবস্থা জোরদার হোক।

বুধবার (০৩ মে) দুপুরে জাপা চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয় মিলনায়তনে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এ কথা বলেন।

নির্বাচন ব্যবস্থা স্বাধীন করতে সবার একমত হওয়ার গুরুত্বের কথা উল্লেখ করে জাপা চেয়ারম্যান বলেন, নির্বাচন ব্যবস্থা নির্ধারণে সব রাজনৈতিক দলকে একত্রিত হতে হবে। প্রতিবেশী দেশ ভারত, শ্রীলঙ্কা, মালদ্বীপ, নেপাল, ভুটান ও পাকিস্তানও সুষ্ঠু নির্বাচনী ব্যবস্থা গড়ে তুলেছে। আমাদের দেশে নির্বাচন নিয়ে একই পুরনো খেলা চলছে।

তিনি বলেন, যখন যে দল সরকারে থাকে তারা সংবিধানের দোহাই দিয়ে নির্বাচন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে। কারণ সরকারে যারা আছেন তারা জনগণের কাছে জবাবদিহি করতে ভয় পান। যখন তিনি ক্ষমতার বাইরে থাকেন, তখন তিনি জনগণের ওপর আস্থা রেখে কথা বলেন। সেই মনোভাব থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। নির্বাচনী ব্যবস্থাকে শক্তিশালী করতে স্থায়ী সমাধান প্রয়োজন।

জিএম কাদের বলেন, নির্বাচন ব্যবস্থা সবার নিয়ন্ত্রণের বাইরে রাখতে হবে। কারণ যারা সরকারে আছেন তাদের নির্বাচন নিয়ন্ত্রণের সুযোগ রয়েছে। আগে যারা সংবিধান রক্ষা করেছিল তারা এখন জনগণের ভোটাধিকারের কথা বলছে। আর যারা সে সময় জনগণের ভোটের অধিকারের কথা বলতেন, তারাই এখন সংবিধানের অজুহাত দিচ্ছেন।

দেশের নির্বাচন ব্যবস্থা নিয়ে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি সার্কাস খেলছে- জিএম কাদের

আপডেট সময় : ০৩:৪৬:৩৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ মে ২০২৩

নিজস্ব প্রতিনিধি:
আওয়ামী লীগ ও বিএনপি দেশের নির্বাচন ব্যবস্থা নিয়ে সার্কাস খেলছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ (জিএম) কাদের।

তিনি বলেন, নির্বাচন ব্যবস্থা প্রশ্নবিদ্ধ হলে গণতন্ত্র চর্চা অসম্ভব। আমরা চাই একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য নির্বাচনী ব্যবস্থা জোরদার হোক।

বুধবার (০৩ মে) দুপুরে জাপা চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয় মিলনায়তনে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এ কথা বলেন।

নির্বাচন ব্যবস্থা স্বাধীন করতে সবার একমত হওয়ার গুরুত্বের কথা উল্লেখ করে জাপা চেয়ারম্যান বলেন, নির্বাচন ব্যবস্থা নির্ধারণে সব রাজনৈতিক দলকে একত্রিত হতে হবে। প্রতিবেশী দেশ ভারত, শ্রীলঙ্কা, মালদ্বীপ, নেপাল, ভুটান ও পাকিস্তানও সুষ্ঠু নির্বাচনী ব্যবস্থা গড়ে তুলেছে। আমাদের দেশে নির্বাচন নিয়ে একই পুরনো খেলা চলছে।

তিনি বলেন, যখন যে দল সরকারে থাকে তারা সংবিধানের দোহাই দিয়ে নির্বাচন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে। কারণ সরকারে যারা আছেন তারা জনগণের কাছে জবাবদিহি করতে ভয় পান। যখন তিনি ক্ষমতার বাইরে থাকেন, তখন তিনি জনগণের ওপর আস্থা রেখে কথা বলেন। সেই মনোভাব থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। নির্বাচনী ব্যবস্থাকে শক্তিশালী করতে স্থায়ী সমাধান প্রয়োজন।

জিএম কাদের বলেন, নির্বাচন ব্যবস্থা সবার নিয়ন্ত্রণের বাইরে রাখতে হবে। কারণ যারা সরকারে আছেন তাদের নির্বাচন নিয়ন্ত্রণের সুযোগ রয়েছে। আগে যারা সংবিধান রক্ষা করেছিল তারা এখন জনগণের ভোটাধিকারের কথা বলছে। আর যারা সে সময় জনগণের ভোটের অধিকারের কথা বলতেন, তারাই এখন সংবিধানের অজুহাত দিচ্ছেন।