ঢাকা ০২:৪৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তানজিনা ও অর্পের নেতৃত্বে ইবি কারাতে ক্লাব

বাংলাদেশ কণ্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় : ০৮:১৩:০১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১১ মার্চ ২০২৪ ৩১ বার পঠিত

সাকিব আসলাম, ইবি প্রতিনিধি:

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) ‘ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় কারাতে ক্লাব’-এর ২৮ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কার্যকরী পরিষদের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এতে সভাপতি হিসেবে হিউম্যান রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট বিভাগের জান্নাতুল ফেরদৌস তানজিনা এবং সাধারণ সম্পাদক হিসেবে হাসিন ইন্তেসাফ অর্প মনোনীত হয়েছে।

রোববার (১০ মার্চ) এ ক্লাবের উপদেষ্টামন্ডলী আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. শাহজাহান মন্ডল, অধ্যাপক ড. রেবা মন্ডল এবং গণিত বিভাগের অধ্যাপক মো. মিজানুর রহমান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে আগামী ১ বছরের জন্য এ পরিষদ দায়িত্বে বহাল হয়।

এছাড়া, কমিটিতে সহ-সভাপতি হিসেবে শামসুন নাহার শাম্মী, জাহীন খান, বিভাগের সাদিয়া সুলতানা, জাকিয়া বুলবুল জবা, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আশিকুর রহমান, আব্দুর রউফ আকাশ, রিয়াজুল হাসান রবিন, সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে কুররাতুল আইন উর্মি, আরিফা ইসলাম, যুথী খাতুন, অর্থ সম্পাদক হিসেবে সাদিয়া ইসলাম মৌ, উপ-অর্থ সম্পাদক হিসেবে ইরফান উল্লাহ, দপ্তর সম্পাদক হিসেবে আখি খাতুন, উপ-দপ্তর সম্পাদক হিসেবে মিথীলা ইসলাম মায়া, প্রচার সম্পাদক হিসেবে মোছা. রুবাইয়াত হাসিন, উপ-প্রচার সম্পাদক হিসেবে ইফফাত জেরিন কেয়া, কর্মশালা সম্পাদক হিসেবে ফাতেহা রহমান মিন্নি, উপ-কর্মশালা সম্পাদক হিসেবে আনিকা আবাছছুম এষা, সাহিত্য সম্পাদক হিসেবে ঐশী জামান মুসকু, প্রকাশনা সম্পাদক হিসেবে মায়িশা মালিহা চৌধুরী, প্রশিক্ষণ সম্পাদক হিসেবে মোছা: স্বর্ণা আক্তার, ক্রীড়া সম্পাদক হিসেবে সিদরাতুল মুনতাহা সাদিয়া, আইটি সম্পাদক হিসেবে লাবিবাহ, কার্যনির্বাহী সদস্য হিসেবে শারমিন আক্তার, সিরাজুম মুনিরা রাফা ও জাকিয়া ফেরদৌস মনোনীত হয়েছে।

নবগঠিত পরিষদের সাধারণ সম্পাদক হাসিন ইন্তেসাফ অর্প বলেন, রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় বাজে মন্তব্যের শিকার হননি এমন নারী খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। এ ছাড়া অন্যায়ভাবে কেউ গায়ে এসে পড়লে নিজেকে তো রক্ষা করা চাই। গুটিকয়েক অসৎ মানুষের জন্য আমাদের জান মালের ঝুকি বেড়ে যায়। এজন্য নারী-পুরুষ সবার জন্যই এই আত্মরক্ষামূলক কারাতে শেখাটা দরকার। আমাদের উদ্দেশ্য এই বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে নিজের আত্মরক্ষায় পারদর্শী ও আত্মবিশ্বাসী করে তোলা যেনো আমরা সকলেই চোখের সামনের অন্যায়ের বিরুদ্ধে রুখে দাড়াতে পারি।

প্রসঙ্গত, অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে ছেলে ও মেয়েদের আত্মরক্ষার কৌশলে পারদর্শী করে তোলা, শিক্ষার্থীদের মধ্যে আত্মবিশ্বাস বাড়ানো, শারীরিক সুস্থতা বজায় রাখতে সহায়তা করা ইত্যাদি বিষয় নিয়ে কাজ করা উদ্দেশ্য হলো ইবি কারাতে ক্লাবের।

তানজিনা ও অর্পের নেতৃত্বে ইবি কারাতে ক্লাব

আপডেট সময় : ০৮:১৩:০১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১১ মার্চ ২০২৪

সাকিব আসলাম, ইবি প্রতিনিধি:

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) ‘ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় কারাতে ক্লাব’-এর ২৮ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কার্যকরী পরিষদের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এতে সভাপতি হিসেবে হিউম্যান রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট বিভাগের জান্নাতুল ফেরদৌস তানজিনা এবং সাধারণ সম্পাদক হিসেবে হাসিন ইন্তেসাফ অর্প মনোনীত হয়েছে।

রোববার (১০ মার্চ) এ ক্লাবের উপদেষ্টামন্ডলী আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. শাহজাহান মন্ডল, অধ্যাপক ড. রেবা মন্ডল এবং গণিত বিভাগের অধ্যাপক মো. মিজানুর রহমান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে আগামী ১ বছরের জন্য এ পরিষদ দায়িত্বে বহাল হয়।

এছাড়া, কমিটিতে সহ-সভাপতি হিসেবে শামসুন নাহার শাম্মী, জাহীন খান, বিভাগের সাদিয়া সুলতানা, জাকিয়া বুলবুল জবা, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আশিকুর রহমান, আব্দুর রউফ আকাশ, রিয়াজুল হাসান রবিন, সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে কুররাতুল আইন উর্মি, আরিফা ইসলাম, যুথী খাতুন, অর্থ সম্পাদক হিসেবে সাদিয়া ইসলাম মৌ, উপ-অর্থ সম্পাদক হিসেবে ইরফান উল্লাহ, দপ্তর সম্পাদক হিসেবে আখি খাতুন, উপ-দপ্তর সম্পাদক হিসেবে মিথীলা ইসলাম মায়া, প্রচার সম্পাদক হিসেবে মোছা. রুবাইয়াত হাসিন, উপ-প্রচার সম্পাদক হিসেবে ইফফাত জেরিন কেয়া, কর্মশালা সম্পাদক হিসেবে ফাতেহা রহমান মিন্নি, উপ-কর্মশালা সম্পাদক হিসেবে আনিকা আবাছছুম এষা, সাহিত্য সম্পাদক হিসেবে ঐশী জামান মুসকু, প্রকাশনা সম্পাদক হিসেবে মায়িশা মালিহা চৌধুরী, প্রশিক্ষণ সম্পাদক হিসেবে মোছা: স্বর্ণা আক্তার, ক্রীড়া সম্পাদক হিসেবে সিদরাতুল মুনতাহা সাদিয়া, আইটি সম্পাদক হিসেবে লাবিবাহ, কার্যনির্বাহী সদস্য হিসেবে শারমিন আক্তার, সিরাজুম মুনিরা রাফা ও জাকিয়া ফেরদৌস মনোনীত হয়েছে।

নবগঠিত পরিষদের সাধারণ সম্পাদক হাসিন ইন্তেসাফ অর্প বলেন, রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় বাজে মন্তব্যের শিকার হননি এমন নারী খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। এ ছাড়া অন্যায়ভাবে কেউ গায়ে এসে পড়লে নিজেকে তো রক্ষা করা চাই। গুটিকয়েক অসৎ মানুষের জন্য আমাদের জান মালের ঝুকি বেড়ে যায়। এজন্য নারী-পুরুষ সবার জন্যই এই আত্মরক্ষামূলক কারাতে শেখাটা দরকার। আমাদের উদ্দেশ্য এই বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে নিজের আত্মরক্ষায় পারদর্শী ও আত্মবিশ্বাসী করে তোলা যেনো আমরা সকলেই চোখের সামনের অন্যায়ের বিরুদ্ধে রুখে দাড়াতে পারি।

প্রসঙ্গত, অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে ছেলে ও মেয়েদের আত্মরক্ষার কৌশলে পারদর্শী করে তোলা, শিক্ষার্থীদের মধ্যে আত্মবিশ্বাস বাড়ানো, শারীরিক সুস্থতা বজায় রাখতে সহায়তা করা ইত্যাদি বিষয় নিয়ে কাজ করা উদ্দেশ্য হলো ইবি কারাতে ক্লাবের।