ঢাকা ০১:৫৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ড. ইউনূসের মামলা অত্যন্ত নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে জাতিসংঘ

বাংলাদেশ কণ্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় : ০২:৪৩:৪৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ২৯ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিনিধি :

নোবেল বিজয়ী একমাত্র বাংলাদেশি অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ ইউনূসের বিরুদ্ধেমামলা নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে জাতিসংঘ। জাতিসংঘের মহাসচিব স্টিফেন ডুজাররিক বলেছেন, কাজের মাধ্যমে ইউনূস জাতিসংঘের প্রিয় বন্ধু। তার কাজকেই অনুসরণ করে বর্তমানে উন্নয়ন কাজ চালিয়ে যাচ্ছে জাতিসংঘ।

নিয়মিত ব্রিফিংয়ে অংশ নিয়ে সাংবাদিক মুশফিকুল ফজল আনসারি জানতে চান- ৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত জালিয়াতিপূর্ণ নির্বাচনের আগে বাংলাদেশে বিরোধী দলের অন্তত ২৫,০০০ সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ১৩ জন নিরাপত্তা হেফাজতে মারা গেছেন। আন্তর্জাতিক চাপের মুখে হাতেগোনা কয়েকজনকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে। আপনি কি বাকি বন্দিদের মুক্তি দাবি করবেন? সাংবাদিকের করা এমন প্রশ্নের জবাবে স্টিফেন ডুজাররিক বলেন, শান্তিপূর্ণ মতপ্রকাশের জন্য আটক ব্যক্তিদের মুক্তির দাবি অব্যাহত রেখেছে জাতিসংঘ।

বাংলাদেশে নোবেলজয়ী প্রফেসর ড. মুহাম্মদ ইউনূসের পরিস্থিতি জাতিসংঘ কিভাবে পর্যবেক্ষণ করছে? এ প্রশ্নের জবাবে ডুজাররিক বলেন, বাংলাদেশে আমাদের যে ‘কান্ট্রি টিম’ আছে তারা বিষয়টি খুব নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে।

একই বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে জাতিসংঘের আরেক মুখপাত্র মুশফিকের জবাবে বলেন, আপনি প্রফেসর ড. ইউনূসের বিষয়ে কথা বলছেন। প্রফেসর ইউনূসের ইতিহাস এবং তার কাজ সম্পর্কে আমরা সবাই জানি। নিঃসন্দেহে তিনি এই সংগঠনের একজন ভাল বন্ধু। তার বিষয়ে কি পদক্ষেপ নেওয়া হয় আমরা তার অপেক্ষায় আছি।

ড. ইউনূসের মামলা অত্যন্ত নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে জাতিসংঘ

আপডেট সময় : ০২:৪৩:৪৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

নিজস্ব প্রতিনিধি :

নোবেল বিজয়ী একমাত্র বাংলাদেশি অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ ইউনূসের বিরুদ্ধেমামলা নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে জাতিসংঘ। জাতিসংঘের মহাসচিব স্টিফেন ডুজাররিক বলেছেন, কাজের মাধ্যমে ইউনূস জাতিসংঘের প্রিয় বন্ধু। তার কাজকেই অনুসরণ করে বর্তমানে উন্নয়ন কাজ চালিয়ে যাচ্ছে জাতিসংঘ।

নিয়মিত ব্রিফিংয়ে অংশ নিয়ে সাংবাদিক মুশফিকুল ফজল আনসারি জানতে চান- ৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত জালিয়াতিপূর্ণ নির্বাচনের আগে বাংলাদেশে বিরোধী দলের অন্তত ২৫,০০০ সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ১৩ জন নিরাপত্তা হেফাজতে মারা গেছেন। আন্তর্জাতিক চাপের মুখে হাতেগোনা কয়েকজনকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে। আপনি কি বাকি বন্দিদের মুক্তি দাবি করবেন? সাংবাদিকের করা এমন প্রশ্নের জবাবে স্টিফেন ডুজাররিক বলেন, শান্তিপূর্ণ মতপ্রকাশের জন্য আটক ব্যক্তিদের মুক্তির দাবি অব্যাহত রেখেছে জাতিসংঘ।

বাংলাদেশে নোবেলজয়ী প্রফেসর ড. মুহাম্মদ ইউনূসের পরিস্থিতি জাতিসংঘ কিভাবে পর্যবেক্ষণ করছে? এ প্রশ্নের জবাবে ডুজাররিক বলেন, বাংলাদেশে আমাদের যে ‘কান্ট্রি টিম’ আছে তারা বিষয়টি খুব নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে।

একই বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে জাতিসংঘের আরেক মুখপাত্র মুশফিকের জবাবে বলেন, আপনি প্রফেসর ড. ইউনূসের বিষয়ে কথা বলছেন। প্রফেসর ইউনূসের ইতিহাস এবং তার কাজ সম্পর্কে আমরা সবাই জানি। নিঃসন্দেহে তিনি এই সংগঠনের একজন ভাল বন্ধু। তার বিষয়ে কি পদক্ষেপ নেওয়া হয় আমরা তার অপেক্ষায় আছি।