ঢাকা ০৭:৪৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ডুয়েট শিক্ষক নিহতের ঘটনায় সুষ্ঠু তদন্তের দাবি

বাংলাদেশ কণ্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় : ০৭:৫৮:৪৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ২৬ বার পঠিত

গাজীপুর প্রতিনিধি :

গাজীপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (ডুয়েট) শিক্ষক রাম কৃষ্ণ সাহার নিহতের ঘটনায় সুষ্ঠু তদন্ত ও ন্যায় বিচারের দাবিতে সড়ক অবরোধ, মানববন্ধন ও শোক র‌্যালী করা হয়েছে। আজ সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ডুয়েটের প্রধান ফটকের সামনে ঢাকা-শিমুলতলী সড়কে এসব কর্মসূচী পালন করে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ও শিক্ষার্থীরা।

মানববন্ধনে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা জানান, রাম কৃষ্ণ সাহা বিশ্ববিদ্যালয়ের নিবেদিত প্রাণ শিক্ষক ছিলেন। তাঁর মতো একজন মেধাবী শিক্ষকের অকাল প্রয়াণ বিশ্ববিদ্যালয় তথা দেশের জন্য অপূরণীয় ক্ষতি। শুধু প্রভাতী-বনশ্রী পরিবহনের দ্রুত গতির বাসের সজারো ধাক্কায় রাম কৃষ্ণ সাহার মৃত্যু হয়নি, এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড বলে দাবি তাদের।

পক্ষপাতহীন তদন্ত দাবি করে তাঁরা আরো বলেন, আমাদের আশঙ্কা এ ঘটনার সুষ্ঠু ও নিরেপক্ষ তদন্ত বাঁধাগ্রস্থ হতে পারে। ভবিষ্যতে এ ধরনের ক্ষতির ঘটনার পুনরাবৃত্তি না ঘটে তার জন্য ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।
ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর ড. মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মো. মাজহারুল ইসলামের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. হিমাংসু ভৌমিক, ছাত্রকল্যাণ পরিচালক প্রফেসর ড. নজরুল ইসলাম।

উল্লেখ্য, গত ২০ ফেব্রুয়ারি সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের যাওয়ার সময় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের চেরাগ আলী উড়াল সড়কে প্রভাতী-বনশ্রী বাসের ধাক্কায় নিহত হন স্থাপত্য বিভাগের সহকারী অধ্যাপক রাম কৃষ্ণ সাহা। আয়ুশী নামে ২ বছর বয়সী তাঁর এক কন্যা সন্তান রয়েছে।

ডুয়েট শিক্ষক নিহতের ঘটনায় সুষ্ঠু তদন্তের দাবি

আপডেট সময় : ০৭:৫৮:৪৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

গাজীপুর প্রতিনিধি :

গাজীপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (ডুয়েট) শিক্ষক রাম কৃষ্ণ সাহার নিহতের ঘটনায় সুষ্ঠু তদন্ত ও ন্যায় বিচারের দাবিতে সড়ক অবরোধ, মানববন্ধন ও শোক র‌্যালী করা হয়েছে। আজ সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ডুয়েটের প্রধান ফটকের সামনে ঢাকা-শিমুলতলী সড়কে এসব কর্মসূচী পালন করে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ও শিক্ষার্থীরা।

মানববন্ধনে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা জানান, রাম কৃষ্ণ সাহা বিশ্ববিদ্যালয়ের নিবেদিত প্রাণ শিক্ষক ছিলেন। তাঁর মতো একজন মেধাবী শিক্ষকের অকাল প্রয়াণ বিশ্ববিদ্যালয় তথা দেশের জন্য অপূরণীয় ক্ষতি। শুধু প্রভাতী-বনশ্রী পরিবহনের দ্রুত গতির বাসের সজারো ধাক্কায় রাম কৃষ্ণ সাহার মৃত্যু হয়নি, এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড বলে দাবি তাদের।

পক্ষপাতহীন তদন্ত দাবি করে তাঁরা আরো বলেন, আমাদের আশঙ্কা এ ঘটনার সুষ্ঠু ও নিরেপক্ষ তদন্ত বাঁধাগ্রস্থ হতে পারে। ভবিষ্যতে এ ধরনের ক্ষতির ঘটনার পুনরাবৃত্তি না ঘটে তার জন্য ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।
ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর ড. মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মো. মাজহারুল ইসলামের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. হিমাংসু ভৌমিক, ছাত্রকল্যাণ পরিচালক প্রফেসর ড. নজরুল ইসলাম।

উল্লেখ্য, গত ২০ ফেব্রুয়ারি সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের যাওয়ার সময় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের চেরাগ আলী উড়াল সড়কে প্রভাতী-বনশ্রী বাসের ধাক্কায় নিহত হন স্থাপত্য বিভাগের সহকারী অধ্যাপক রাম কৃষ্ণ সাহা। আয়ুশী নামে ২ বছর বয়সী তাঁর এক কন্যা সন্তান রয়েছে।