ঢাকা ১১:৩১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে খণ্ডকালীন এমফিল-পিএইচডি সুবিধা বন্ধ 

ইউসূফ জামিল, জাবি প্রতিনিধি :
  • আপডেট সময় : ০৪:১৩:৫০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ জুন ২০২৪ ২৯ বার পঠিত
আগামী চার বছরের পূর্ণকালীন শিক্ষাছুটি না নিয়ে খণ্ডকালীন ছুটিতে এমফিল-পিএইচডি করার সুযোগ জন্য বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি) প্রশাসন। তাই, এখন থেকে পেশাজীবীদের এমফিল-পিএইচডি করার জন্য কর্মস্থল থেকে পূর্ণকালীন ছুটি নিতে হবে।
গত ২৩ মে অনুষ্ঠিত সিন্ডিকেট সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের চুক্তিভিত্তিক রেজিস্ট্রার আবু হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
এছাড়াও গত ৩০ মে প্রকাশিত এমফিল ও পিএইচডি ভর্তি বিজ্ঞপ্তিতে আবশ্যিক ছুটির বিষয়টি উল্লেখ করা হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে এমফিল ভর্তিতে এক বছর ও পিএইচডি ভর্তিতে দুই বছরের পূর্ণকালীন শিক্ষা ছুটি নেওয়ার শর্ত জুড়ে দেয়া হয়েছে।
রেজিস্ট্রার বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষা-গবেষণায় অনেকদূর এগিয়ে গেছে। শিক্ষা-গবেষণার মান আরো বাড়াতে শিক্ষা পর্ষদের ১৩৮তম সভার সুপারিশের প্রেক্ষিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভায় আগামী চার বছরের জন্য এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। ২০২৪-২০২৫ শিক্ষাবর্ষ থেকেই এটা কার্যকর হবে। ইতোমধ্যেই সংশোধিত নীতিমালা অনুযায়ী ভর্তি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে।
রেজিস্ট্রার অফিসের অভ্যন্তরীণ একটি সূত্র জানিয়েছে, পরীক্ষামূলকভাবে আগামী চার বছরের জন্য এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। একাডেমিক কাউন্সিল (শিক্ষা পর্ষদ) সদস্যদের ইচ্ছার ওপর পরবর্তীতে নতুন সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।
উপাচার্য অধ্যাপক নূরুল আলম বলেন, আমরা গবেষণাকে সবসময় অগ্রাধিকার দিয়ে আসছি। আগামীতেও গবেষণার উপযোগী পরিবেশ সৃষ্টির এ ধারা অব্যহত থাকবে।
চার বছরের জন্য এ সিদ্ধান্ত নেয়া হলেও এটিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য কল্যাণকর বলে মনে করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সরকার ও রাজনীতি বিভাগের অধ্যাপক তারিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, দীর্ঘদিন পরে হলেও এমন সিদ্ধান্ত নেয়ার জন্য কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ। আশা করি, রিসার্চ সেলকে কার্যকর করার মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ গবেষণার জন্য অধিকতর সুন্দর পরিবেশ সৃষ্টি করবে।
শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক মোতাহার হোসেন বলেন, এটি একটি যুগোপযোগী সিদ্ধান্ত। এর মধ্য দিয়ে কর্তৃপক্ষ চাইলে গবেষণায় বিশ্ববিদ্যালয় একটি মাইফলক অর্জন করবে।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে খণ্ডকালীন এমফিল-পিএইচডি সুবিধা বন্ধ 

আপডেট সময় : ০৪:১৩:৫০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ জুন ২০২৪
আগামী চার বছরের পূর্ণকালীন শিক্ষাছুটি না নিয়ে খণ্ডকালীন ছুটিতে এমফিল-পিএইচডি করার সুযোগ জন্য বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি) প্রশাসন। তাই, এখন থেকে পেশাজীবীদের এমফিল-পিএইচডি করার জন্য কর্মস্থল থেকে পূর্ণকালীন ছুটি নিতে হবে।
গত ২৩ মে অনুষ্ঠিত সিন্ডিকেট সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের চুক্তিভিত্তিক রেজিস্ট্রার আবু হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
এছাড়াও গত ৩০ মে প্রকাশিত এমফিল ও পিএইচডি ভর্তি বিজ্ঞপ্তিতে আবশ্যিক ছুটির বিষয়টি উল্লেখ করা হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে এমফিল ভর্তিতে এক বছর ও পিএইচডি ভর্তিতে দুই বছরের পূর্ণকালীন শিক্ষা ছুটি নেওয়ার শর্ত জুড়ে দেয়া হয়েছে।
রেজিস্ট্রার বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষা-গবেষণায় অনেকদূর এগিয়ে গেছে। শিক্ষা-গবেষণার মান আরো বাড়াতে শিক্ষা পর্ষদের ১৩৮তম সভার সুপারিশের প্রেক্ষিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভায় আগামী চার বছরের জন্য এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। ২০২৪-২০২৫ শিক্ষাবর্ষ থেকেই এটা কার্যকর হবে। ইতোমধ্যেই সংশোধিত নীতিমালা অনুযায়ী ভর্তি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে।
রেজিস্ট্রার অফিসের অভ্যন্তরীণ একটি সূত্র জানিয়েছে, পরীক্ষামূলকভাবে আগামী চার বছরের জন্য এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। একাডেমিক কাউন্সিল (শিক্ষা পর্ষদ) সদস্যদের ইচ্ছার ওপর পরবর্তীতে নতুন সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।
উপাচার্য অধ্যাপক নূরুল আলম বলেন, আমরা গবেষণাকে সবসময় অগ্রাধিকার দিয়ে আসছি। আগামীতেও গবেষণার উপযোগী পরিবেশ সৃষ্টির এ ধারা অব্যহত থাকবে।
চার বছরের জন্য এ সিদ্ধান্ত নেয়া হলেও এটিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য কল্যাণকর বলে মনে করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সরকার ও রাজনীতি বিভাগের অধ্যাপক তারিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, দীর্ঘদিন পরে হলেও এমন সিদ্ধান্ত নেয়ার জন্য কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ। আশা করি, রিসার্চ সেলকে কার্যকর করার মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ গবেষণার জন্য অধিকতর সুন্দর পরিবেশ সৃষ্টি করবে।
শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক মোতাহার হোসেন বলেন, এটি একটি যুগোপযোগী সিদ্ধান্ত। এর মধ্য দিয়ে কর্তৃপক্ষ চাইলে গবেষণায় বিশ্ববিদ্যালয় একটি মাইফলক অর্জন করবে।