ঢাকা ০৩:১৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চাকরির ভুয়া নিয়োগপত্র দিয়ে টাকা আত্মসাৎ তিন সদস্য গ্রেপ্তার

বাংলাদেশ কণ্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় : ০৪:২২:২৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ২৩ বার পঠিত

নওগাঁ প্রতিনিধি :
নওগাঁর বদলগাছী থেকে প্রতারক চক্রের মূল হোতাসহ তিনজনকে আটক করেছে জয়পুরহাট র‌্যাব-৫। গ্রেপ্তারকৃতরা সামজসেবা অফিসে চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে ও ভুয়া নিয়োগপত্র দিয়ে অর্থ হাতিয়ে নিতেন বলে জানায় র‌্যাব-৫
গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন-বদলগাছী উপজেলার কোলা ইউনিয়নের কেশাইল গ্রামের আমজাদ হোসেনের ছেলে নাজমুল হক (২৮), জয়পুরহাট জেলার আক্কেলপুর উপজেলার নীচা বাজার (ফকিরপাড়া) গ্রামের মৃত আব্দুল লতিফের ছেলে জামাল উদ্দিন (৬০) ও একই উপজেলার পশ্চিম আমট্ট গ্রামের মৃত মুখফুর সরদারের ছেলে সালাম সরদার (৫৬)।
গত রবিবার র‌্যাব-৫ জয়পুরহাট ক্যাম্প থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান। এর আগে গত শনিবার সন্ধ্যায় বদলগাছী উপজেলার ভান্ডারপুর এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২০১৬ সাল থেকে গ্রেপ্তারকৃতরা একটি প্রতারক চক্রের সিন্ডিকেট হিসেবে কাজ করছে। এর মধ্যে নাজমুল হক হচ্ছে এদের মূল হোতা আর জামাল উদ্দিন ও সালাম সরদার তার সহকারী হিসেবে জাল দলিল তৈরি ও টাকা আদায়ের কাজ করতেন। ২০২২ সালে নাজমুল চাকরি দেওয়ার নাম করে ভিকটিম শহিদুল ইসলামের কাছ থেকে ১০ লাখ টাকা নেন। পরে জামাল উদ্দিনের মাধ্যমে ভুয়া নিয়োগপত্র দেন।
পরবর্তীতে জয়পুরহাট জেলার আক্কেলপুর সমাজসেবা অফিসে ওই চাকরিতে যোগ দিতে গেলে ওই ভুয়া নিয়োগপত্রের কথা জানতে পারেন তিনি। এরপর ভুক্তভোগী বাদী হয়ে জয়পুরহাট র‌্যাব ক্যাম্পে অভিযোগ করলে র‌্যাব-৫ এর একটি অভিযান চৌকস দল জাল কাগজপত্রসহ ওই সিন্ডিকেটকে আটক করে।
আরও বলা হয়, গ্রেপ্তারকৃত নাজমুল হক সমাজসেবা অফিসের পিয়নের চাকরি করতেন এবং বর্তমানে অবসরে গেছেন। সেই সুযোগ কাজে লাগিয়ে চাকরির মিথ্যা আশ্বাস দিয়ে সমাজসেবা অফিসের ভুয়া নিয়োগপত্র দিয়ে প্রার্থীদের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিতেন তারা। তাদের বিরুদ্ধে বদলগাছী থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

চাকরির ভুয়া নিয়োগপত্র দিয়ে টাকা আত্মসাৎ তিন সদস্য গ্রেপ্তার

আপডেট সময় : ০৪:২২:২৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

নওগাঁ প্রতিনিধি :
নওগাঁর বদলগাছী থেকে প্রতারক চক্রের মূল হোতাসহ তিনজনকে আটক করেছে জয়পুরহাট র‌্যাব-৫। গ্রেপ্তারকৃতরা সামজসেবা অফিসে চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে ও ভুয়া নিয়োগপত্র দিয়ে অর্থ হাতিয়ে নিতেন বলে জানায় র‌্যাব-৫
গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন-বদলগাছী উপজেলার কোলা ইউনিয়নের কেশাইল গ্রামের আমজাদ হোসেনের ছেলে নাজমুল হক (২৮), জয়পুরহাট জেলার আক্কেলপুর উপজেলার নীচা বাজার (ফকিরপাড়া) গ্রামের মৃত আব্দুল লতিফের ছেলে জামাল উদ্দিন (৬০) ও একই উপজেলার পশ্চিম আমট্ট গ্রামের মৃত মুখফুর সরদারের ছেলে সালাম সরদার (৫৬)।
গত রবিবার র‌্যাব-৫ জয়পুরহাট ক্যাম্প থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান। এর আগে গত শনিবার সন্ধ্যায় বদলগাছী উপজেলার ভান্ডারপুর এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২০১৬ সাল থেকে গ্রেপ্তারকৃতরা একটি প্রতারক চক্রের সিন্ডিকেট হিসেবে কাজ করছে। এর মধ্যে নাজমুল হক হচ্ছে এদের মূল হোতা আর জামাল উদ্দিন ও সালাম সরদার তার সহকারী হিসেবে জাল দলিল তৈরি ও টাকা আদায়ের কাজ করতেন। ২০২২ সালে নাজমুল চাকরি দেওয়ার নাম করে ভিকটিম শহিদুল ইসলামের কাছ থেকে ১০ লাখ টাকা নেন। পরে জামাল উদ্দিনের মাধ্যমে ভুয়া নিয়োগপত্র দেন।
পরবর্তীতে জয়পুরহাট জেলার আক্কেলপুর সমাজসেবা অফিসে ওই চাকরিতে যোগ দিতে গেলে ওই ভুয়া নিয়োগপত্রের কথা জানতে পারেন তিনি। এরপর ভুক্তভোগী বাদী হয়ে জয়পুরহাট র‌্যাব ক্যাম্পে অভিযোগ করলে র‌্যাব-৫ এর একটি অভিযান চৌকস দল জাল কাগজপত্রসহ ওই সিন্ডিকেটকে আটক করে।
আরও বলা হয়, গ্রেপ্তারকৃত নাজমুল হক সমাজসেবা অফিসের পিয়নের চাকরি করতেন এবং বর্তমানে অবসরে গেছেন। সেই সুযোগ কাজে লাগিয়ে চাকরির মিথ্যা আশ্বাস দিয়ে সমাজসেবা অফিসের ভুয়া নিয়োগপত্র দিয়ে প্রার্থীদের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিতেন তারা। তাদের বিরুদ্ধে বদলগাছী থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।