ঢাকা ১২:৩১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo উত্তরায় গুলিতে নর্দান বিশ্ববিদ্যালয়ের ২ শিক্ষার্থী নিহত Logo কোটা সংস্কারের দাবির সঙ্গে একমত পোষণ করেছে সরকার: আইনমন্ত্রী Logo মোবাইলে ইন্টারনেট সংযোগ বন্ধ Logo ঢাকার সঙ্গে সব জেলার যোগাযোগ বন্ধ, টার্মিনাল থেকে ছাড়ছে না কোনো বাস Logo ছাত্রলীগের সঙ্গে আন্দোলনকারীদের সংঘর্ষ, ঢাকা চট্টগ্রামে ও রংপুরে ৫ জন নিহত Logo কোটাবিরোধী আন্দোলনকারীদের সঙ্গে ছাত্রলীগের দফায় দফায় সংঘর্ষ, সারাদেশে নিহত ৫ Logo ডেসকো’র উদ্যোগে অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন Logo র‍্যাংগস ই-মার্ট এনেছে এলজির নতুন ও এলইডি সি থ্রি সিরিজ ২০২৪ Logo বিদ্যুতের খুঁটিতে আটকা আঞ্চলিক দুই মহাসড়কের কাজ, দুর্ভোগ-ভোগান্তি Logo কোটা আন্দোলনকে রাজনৈতিকভাবে মোকাবিলা করার ইচ্ছা নেই: ওবায়দুল কাদের

গণ ধর্ষণের মামলা মিথ্যা প্রমাণিত

বাংলাদেশ কণ্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় : ০৪:৪১:৪০ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ মার্চ ২০২৩ ১৫ বার পঠিত

নওগাঁ প্রতিনিধি :
মঙ্গলবার দুপুরে নওগাঁর নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনাল-২ এর বিচারক মেহেদী হাসান তালুকদার এই নির্দেশ দেন। নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২ এর স্পেশাল পিপি অ্যাডভোকেট মকবুল হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
কারাগারে যাওয়া ওই নারীর স্বামীর নাম অ্যাডভোকেট শহিদুল ইসলাম। ওই নারী বদলগাছী উপজেলা কোলা ইউনিয়নের গয়রা গ্রামের মোজাহার আলীর মেয়ে।
আদালত সূত্রে জানা যায়, কারাগারে যাওয়া ওই নারী নিজেকে বিধবা পরিচয় দিয়ে একই গ্রামের হাবিবুর রহমানসহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে ২০১৩ সালে মামলা করেন। দীর্ঘ শুনানি শেষে চলতি বছরের ৯ মার্চ এক রায়ে ওই মামলা সম্পূর্ণভাবে মিথ্যা প্রমাণিত হওয়ায় আসামিরা বেকসুর খালাস পান।
এরপর মিথ্যা মামলা করার দায়ে হাবিবুর রহমান বাদী হয়ে গত ২০ মার্চ নারী শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২ আদালতে মামলা করলে ওই নারী আদালতে উপস্থিত হয়ে আত্মসমর্পণ করলে বিচারক মো. মেহেদী হাসান তালুকদার তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

গণ ধর্ষণের মামলা মিথ্যা প্রমাণিত

আপডেট সময় : ০৪:৪১:৪০ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ মার্চ ২০২৩

নওগাঁ প্রতিনিধি :
মঙ্গলবার দুপুরে নওগাঁর নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনাল-২ এর বিচারক মেহেদী হাসান তালুকদার এই নির্দেশ দেন। নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২ এর স্পেশাল পিপি অ্যাডভোকেট মকবুল হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
কারাগারে যাওয়া ওই নারীর স্বামীর নাম অ্যাডভোকেট শহিদুল ইসলাম। ওই নারী বদলগাছী উপজেলা কোলা ইউনিয়নের গয়রা গ্রামের মোজাহার আলীর মেয়ে।
আদালত সূত্রে জানা যায়, কারাগারে যাওয়া ওই নারী নিজেকে বিধবা পরিচয় দিয়ে একই গ্রামের হাবিবুর রহমানসহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে ২০১৩ সালে মামলা করেন। দীর্ঘ শুনানি শেষে চলতি বছরের ৯ মার্চ এক রায়ে ওই মামলা সম্পূর্ণভাবে মিথ্যা প্রমাণিত হওয়ায় আসামিরা বেকসুর খালাস পান।
এরপর মিথ্যা মামলা করার দায়ে হাবিবুর রহমান বাদী হয়ে গত ২০ মার্চ নারী শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২ আদালতে মামলা করলে ওই নারী আদালতে উপস্থিত হয়ে আত্মসমর্পণ করলে বিচারক মো. মেহেদী হাসান তালুকদার তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।