ঢাকা ০৫:০০ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কিশোরগঞ্জে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি ১৮ বছর পর গ্রেফতার

বাংলাদেশ কণ্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় : ০৭:৪৮:৩২ অপরাহ্ন, সোমবার, ৬ মার্চ ২০২৩ ৬ বার পঠিত

শফিক কবীর, কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
কিশোরগঞ্জে অপহরণের পর ধর্ষণ মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি মানিক মিয়াকে (৫২) গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।
রবিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১১টার দিকে ঢাকার দক্ষিণখান এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে র‌্যাব-১৪ কিশোরগঞ্জ ক্যাম্পের সদস্যরা। তিনি দীর্ঘ ১৮ বছর ধরে আত্মগোপনে ছিলেন বলে র‌্যাব জানায়। গ্রেফতার আসামি মানিক মিয়া কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার খিলপাড়া গ্রামের আব্দুস সাহেদ মিয়ার ছেলে। কিশোরগঞ্জ র‌্যাব ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার এম. এম. সবুজ রানা জানায়, ‘২০০৫ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি রাত অনুমানিক ৭টার দিকে মানিক মিয়া সহযোগি আসামির সহায়তায় কিশোরী ভিকটিমকে অপহরণ করে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন। এ ঘটনায় ভিকটিম নিজেই বাদি হয়ে মানিক মিয়াকে প্রধান আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন মামলা দায়ের করেন। ঘটনার পর থেকেই আসামি আত্মগোপনে চলে যান।’
২০২১ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি কিশোরগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ কিরণ শংকর হালদার মামলার প্রধান আসামি মানিক মিয়াকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ১ বছর সশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন।
ঘটনার পর থেকে দীর্ঘ ১৮ বছর মানিক মিয়া আত্মগোপনে ছিলেন। যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামির অবস্থান সম্পর্কে র‌্যাব বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ ও বিশ্লেষণ করে আসামির অবস্থান নিশ্চিত হয় এবং গোয়েন্দা শাখার সহযোগিতায় তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে রবিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে ঢাকার দক্ষিণখান এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে। পরবর্তী কার্যক্রমের জন্য তাকে কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়।

কিশোরগঞ্জে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি ১৮ বছর পর গ্রেফতার

আপডেট সময় : ০৭:৪৮:৩২ অপরাহ্ন, সোমবার, ৬ মার্চ ২০২৩

শফিক কবীর, কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
কিশোরগঞ্জে অপহরণের পর ধর্ষণ মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি মানিক মিয়াকে (৫২) গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।
রবিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১১টার দিকে ঢাকার দক্ষিণখান এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে র‌্যাব-১৪ কিশোরগঞ্জ ক্যাম্পের সদস্যরা। তিনি দীর্ঘ ১৮ বছর ধরে আত্মগোপনে ছিলেন বলে র‌্যাব জানায়। গ্রেফতার আসামি মানিক মিয়া কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার খিলপাড়া গ্রামের আব্দুস সাহেদ মিয়ার ছেলে। কিশোরগঞ্জ র‌্যাব ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার এম. এম. সবুজ রানা জানায়, ‘২০০৫ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি রাত অনুমানিক ৭টার দিকে মানিক মিয়া সহযোগি আসামির সহায়তায় কিশোরী ভিকটিমকে অপহরণ করে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন। এ ঘটনায় ভিকটিম নিজেই বাদি হয়ে মানিক মিয়াকে প্রধান আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন মামলা দায়ের করেন। ঘটনার পর থেকেই আসামি আত্মগোপনে চলে যান।’
২০২১ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি কিশোরগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ কিরণ শংকর হালদার মামলার প্রধান আসামি মানিক মিয়াকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ১ বছর সশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন।
ঘটনার পর থেকে দীর্ঘ ১৮ বছর মানিক মিয়া আত্মগোপনে ছিলেন। যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামির অবস্থান সম্পর্কে র‌্যাব বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ ও বিশ্লেষণ করে আসামির অবস্থান নিশ্চিত হয় এবং গোয়েন্দা শাখার সহযোগিতায় তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে রবিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে ঢাকার দক্ষিণখান এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে। পরবর্তী কার্যক্রমের জন্য তাকে কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়।