ঢাকা ০৫:২৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :

ইতালিতে সম্প্রতি নৌকাডুবিতে মৃত্যুর ঘটনায় অভিবাসীদের অধিকার আদায়ে ভেনিসে প্রতিবাদ সমাবেশ

বাংলাদেশ কণ্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় : ০৩:৩১:৩৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ মার্চ ২০২৩ ৯ বার পঠিত

সোহানুর রহমান উজ্জ্বল,ইতালি প্রতিনিধি:
মানবতা তখনই সর্বোৎকৃষ্ট পর্যায়ে অবস্থান করে যখন তা পরিপূণর্ভাবে যথাস্থানে প্রয়োগ করা যায়। অন্যথায় মানবতা কথাটির প্রকৃত কোন অর্থ প্রকাশ পায় না। মানুষ থেকে মানবতার সৃষ্টি আবার মানুষ দ্বারাই সেই মানবতার ধ্বংস করা হয়।
সমুদ্রপথে ইতালিতে অনুপ্রবেশ করতে গিয়ে গত ২৫শে ফেব্রুয়ারি মৃত্যু বরন করেন শিশু সহ প্রায় ৭৬ জন অভিবাসন প্রত্যাশী। ভেনিসে আন্দোলনকারীরা মনে করেন সরকার বিভিন্ন দেশ হতে আসা অভিবাসীদের যে বিষয়ে আলোচনা করছেন, তা যদি সমুদ্রে তাদের আটকে না রেখে ভেতরে প্রবেশ করিয়ে নিতেন, তাহলে এতো মৃত্যু হতো না। ইতালির কঠোর সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে ও মানুষের মানবিক অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে ইতালির বিভিন্ন সংগঠনের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে সমাবেশে যোগদান করেন ভেনিস বাংলা স্কুল কর্তৃপক্ষ । অংশগ্রহণকারী সকল সংগঠনের একটাই স্লোগান ছিল ‘বাঁচার অধিকার সকলেরই আছে’। আন্দোলনকারীরা আরো বলেন, ‘প্রবাসীদের ডক্যুমেন্টস রিনিউ করার টাকা (premesso di soggiorno) প্রবাসীদের পিছনে খরচ হয় না, তাহলে কোথায় খরচ করা হয় এই টাকা। ইন্তেগ্রাযিওনের নামে কোথায় টাকা খরচ করছে।’ প্রতিবাদ সমাবেশে, সমুদ্রে নৌকা ডুবিতে নিহত সকলের জন্য এক মিনিট নিরবতা পালন করেন উপস্তিত সকলে। সে সময় বিভিন্ন সংগঠনের নেতা-কর্মীরা অভিবাসন প্রত্যাশীদের আশ্রয় দিতে ইতালি সরকারের কাছে অনুরোধ জানিয়ে বক্তব্য রাখেন। ভেনিস মেস্ত্রের পিয়াচ্ছা ফেরেত্ততে হাজারো মানুষের উপস্থিতি বলে দেয়, বিবেকবান মানুষ ও মানবতা এখনো আছে এবং মানুষই মানুষের জন্য।

ইতালিতে সম্প্রতি নৌকাডুবিতে মৃত্যুর ঘটনায় অভিবাসীদের অধিকার আদায়ে ভেনিসে প্রতিবাদ সমাবেশ

আপডেট সময় : ০৩:৩১:৩৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ মার্চ ২০২৩

সোহানুর রহমান উজ্জ্বল,ইতালি প্রতিনিধি:
মানবতা তখনই সর্বোৎকৃষ্ট পর্যায়ে অবস্থান করে যখন তা পরিপূণর্ভাবে যথাস্থানে প্রয়োগ করা যায়। অন্যথায় মানবতা কথাটির প্রকৃত কোন অর্থ প্রকাশ পায় না। মানুষ থেকে মানবতার সৃষ্টি আবার মানুষ দ্বারাই সেই মানবতার ধ্বংস করা হয়।
সমুদ্রপথে ইতালিতে অনুপ্রবেশ করতে গিয়ে গত ২৫শে ফেব্রুয়ারি মৃত্যু বরন করেন শিশু সহ প্রায় ৭৬ জন অভিবাসন প্রত্যাশী। ভেনিসে আন্দোলনকারীরা মনে করেন সরকার বিভিন্ন দেশ হতে আসা অভিবাসীদের যে বিষয়ে আলোচনা করছেন, তা যদি সমুদ্রে তাদের আটকে না রেখে ভেতরে প্রবেশ করিয়ে নিতেন, তাহলে এতো মৃত্যু হতো না। ইতালির কঠোর সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে ও মানুষের মানবিক অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে ইতালির বিভিন্ন সংগঠনের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে সমাবেশে যোগদান করেন ভেনিস বাংলা স্কুল কর্তৃপক্ষ । অংশগ্রহণকারী সকল সংগঠনের একটাই স্লোগান ছিল ‘বাঁচার অধিকার সকলেরই আছে’। আন্দোলনকারীরা আরো বলেন, ‘প্রবাসীদের ডক্যুমেন্টস রিনিউ করার টাকা (premesso di soggiorno) প্রবাসীদের পিছনে খরচ হয় না, তাহলে কোথায় খরচ করা হয় এই টাকা। ইন্তেগ্রাযিওনের নামে কোথায় টাকা খরচ করছে।’ প্রতিবাদ সমাবেশে, সমুদ্রে নৌকা ডুবিতে নিহত সকলের জন্য এক মিনিট নিরবতা পালন করেন উপস্তিত সকলে। সে সময় বিভিন্ন সংগঠনের নেতা-কর্মীরা অভিবাসন প্রত্যাশীদের আশ্রয় দিতে ইতালি সরকারের কাছে অনুরোধ জানিয়ে বক্তব্য রাখেন। ভেনিস মেস্ত্রের পিয়াচ্ছা ফেরেত্ততে হাজারো মানুষের উপস্থিতি বলে দেয়, বিবেকবান মানুষ ও মানবতা এখনো আছে এবং মানুষই মানুষের জন্য।