ঢাকা ০৬:৪৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আফগানিস্তানে তুষারপাত-বৃষ্টিতে ৬০ জন নিহত

বাংলাদেশ কণ্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় : ০২:০৬:৫০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৪ মার্চ ২০২৪ ১৮ বার পঠিত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

আফগানিস্তানে গত তিন সপ্তাহে তুষার ও বৃষ্টিতে অন্তত ৬০ জন নিহত হয়েছে। দেশটির দুর্যোগ বিষয়ক মন্ত্রণালয় এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। এই শীতে আফগানিস্তানে খুবই অস্বাভাবিক পরিস্থিতি বিরাজ করছে। কিন্তু ঋতুর শেষ সাধারণত যখন আবহাওয়া খারাপের দিকে মোড় নেয়। বিশেষ করে আকস্মিক বৃষ্টি ও বন্যায় জনগণের ব্যাপক ক্ষতি হয়।

এক ভিডিও বার্তায় দুর্যোগ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জনান সায়েক বলেছেন, তুষার ও বৃষ্টির কারণে ২০ ফেব্রুয়ারি থেকে বিভিন্ন দুর্ঘটনায় ৬০ জন প্রাণ হারিয়েছেন এবং ২৩ জন আহত হয়েছেন।

এই দুর্যোগে প্রায় ১,৬৪৫টি বাড়ি সম্পূর্ণ বা আংশিকভাবে ধ্বংস হয়ে গেছে। এছাড়া প্রায় ১৭৮,০০০ গবাদি পশু মারা গেছে বলেও জানান তিনি।

মার্কিন-সমর্থিত সরকারের পতন এবং তালেবানের ফিরে আসার পর থেকে আফগানিস্তানে বৈদেশিক সাহায্য নাটকীয়ভাবে কমে গেছে। ফলে এ ধরনের বিপর্যয় মোকাবেলা করা তালেবান সরকারের জন্য খুবই কঠিন হবে।

গত বছরের অক্টোবরে আফগানিস্তানের হেরাত প্রদেশে ভয়াবহ ভূমিকম্প হয়। সেই চোট এখনো কাটিয়ে উঠতে পারেনি। এদিকে সোমবার সন্ধ্যা থেকে টানা বৃষ্টিতে আকস্মিক বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে।

মঙ্গলবার প্রাদেশিক রাজধানী হেরাতে একটি বাড়ির ছাদ ধসে একই পরিবারের পাঁচ সদস্য নিহত হয়েছেন। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা আব্দুল জাহের নূরজাই সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

প্রাদেশিক তথ্য অনুযায়ী, প্রায় ২৫০টি বাড়ি ধ্বংস হয়েছে এবং কৃষি জমির একটি বড় অংশ প্লাবিত হয়েছে। তিনি আরও বলেন, বৃহস্পতিবার থেকে ত্রাণসামগ্রী পৌঁছাতে হবে।

আফগানিস্তানে তুষারপাত-বৃষ্টিতে ৬০ জন নিহত

আপডেট সময় : ০২:০৬:৫০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৪ মার্চ ২০২৪

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

আফগানিস্তানে গত তিন সপ্তাহে তুষার ও বৃষ্টিতে অন্তত ৬০ জন নিহত হয়েছে। দেশটির দুর্যোগ বিষয়ক মন্ত্রণালয় এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। এই শীতে আফগানিস্তানে খুবই অস্বাভাবিক পরিস্থিতি বিরাজ করছে। কিন্তু ঋতুর শেষ সাধারণত যখন আবহাওয়া খারাপের দিকে মোড় নেয়। বিশেষ করে আকস্মিক বৃষ্টি ও বন্যায় জনগণের ব্যাপক ক্ষতি হয়।

এক ভিডিও বার্তায় দুর্যোগ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জনান সায়েক বলেছেন, তুষার ও বৃষ্টির কারণে ২০ ফেব্রুয়ারি থেকে বিভিন্ন দুর্ঘটনায় ৬০ জন প্রাণ হারিয়েছেন এবং ২৩ জন আহত হয়েছেন।

এই দুর্যোগে প্রায় ১,৬৪৫টি বাড়ি সম্পূর্ণ বা আংশিকভাবে ধ্বংস হয়ে গেছে। এছাড়া প্রায় ১৭৮,০০০ গবাদি পশু মারা গেছে বলেও জানান তিনি।

মার্কিন-সমর্থিত সরকারের পতন এবং তালেবানের ফিরে আসার পর থেকে আফগানিস্তানে বৈদেশিক সাহায্য নাটকীয়ভাবে কমে গেছে। ফলে এ ধরনের বিপর্যয় মোকাবেলা করা তালেবান সরকারের জন্য খুবই কঠিন হবে।

গত বছরের অক্টোবরে আফগানিস্তানের হেরাত প্রদেশে ভয়াবহ ভূমিকম্প হয়। সেই চোট এখনো কাটিয়ে উঠতে পারেনি। এদিকে সোমবার সন্ধ্যা থেকে টানা বৃষ্টিতে আকস্মিক বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে।

মঙ্গলবার প্রাদেশিক রাজধানী হেরাতে একটি বাড়ির ছাদ ধসে একই পরিবারের পাঁচ সদস্য নিহত হয়েছেন। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা আব্দুল জাহের নূরজাই সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

প্রাদেশিক তথ্য অনুযায়ী, প্রায় ২৫০টি বাড়ি ধ্বংস হয়েছে এবং কৃষি জমির একটি বড় অংশ প্লাবিত হয়েছে। তিনি আরও বলেন, বৃহস্পতিবার থেকে ত্রাণসামগ্রী পৌঁছাতে হবে।