ঢাকা ০৫:৩৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আপন ঠিকানা কসবার উদ্যোগে অজ্ঞাত মহিলার লাশ দাফন

বাংলাদেশ কণ্ঠ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় : ০৭:০৭:৪৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ১৬ বার পঠিত

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ
প্রতিটি মানুষ মৃত্যুবরণ করবে, তখন আপন লোক কেউ কাছে বা পাশে না থাকলেও তখন কেউ না কেউ দায়িত্ব নিয়ে মানবতার সেবায় এগিয়ে আসে। তেমনি এক অজ্ঞাতনামা মহিলার লাশ দাফনের দায়িত্ব নিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার কসবা উপজেলার আপন ঠিকানা’র প্রতিষ্ঠাতা সাংবাদিক খ.ম.হারুনুর রশীদ ঢালী । গতকাল দুপুরে কসবা পৌর মেয়র গোলাম হাক্কানির সহযোগিতায় পৌর কবরস্থানে অজ্ঞাত মহিলার লাশ আছরবাদ তেতৈয়া ফুলতলা নামক কবরস্থানে জানাযা শেষে দাফন করা হয়। কায়েমপুর ইউনিয়ন থেকে বৃদ্ধা মহিলাকে সোমবার কসবা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। রাতেই হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন। আপন ঠিকানা কসবাকে সংবাদ দিলে ঘটনাস্থলে পৌছে কসবা পৌরসভার মেয়র গোলাম হাক্কানী, কসবা থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ মহিউদ্দিন পিপিএম, কায়েমপুর ইউপি চেয়ারম্যান ইকতিয়ার আলম রনি। পরে হাসপাতালের অনুমতিতে স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর বীর মুক্তিযোদ্ধা রগু মিয়ার সহযোগিতায় তেতৈয়া মসজিদে গোসলের ব্যবস্থা করা হয় এবং কবরস্থানে তার লাশ দাফন করা হয়।

 

আপন ঠিকানা কসবার উদ্যোগে অজ্ঞাত মহিলার লাশ দাফন

আপডেট সময় : ০৭:০৭:৪৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ
প্রতিটি মানুষ মৃত্যুবরণ করবে, তখন আপন লোক কেউ কাছে বা পাশে না থাকলেও তখন কেউ না কেউ দায়িত্ব নিয়ে মানবতার সেবায় এগিয়ে আসে। তেমনি এক অজ্ঞাতনামা মহিলার লাশ দাফনের দায়িত্ব নিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার কসবা উপজেলার আপন ঠিকানা’র প্রতিষ্ঠাতা সাংবাদিক খ.ম.হারুনুর রশীদ ঢালী । গতকাল দুপুরে কসবা পৌর মেয়র গোলাম হাক্কানির সহযোগিতায় পৌর কবরস্থানে অজ্ঞাত মহিলার লাশ আছরবাদ তেতৈয়া ফুলতলা নামক কবরস্থানে জানাযা শেষে দাফন করা হয়। কায়েমপুর ইউনিয়ন থেকে বৃদ্ধা মহিলাকে সোমবার কসবা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। রাতেই হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন। আপন ঠিকানা কসবাকে সংবাদ দিলে ঘটনাস্থলে পৌছে কসবা পৌরসভার মেয়র গোলাম হাক্কানী, কসবা থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ মহিউদ্দিন পিপিএম, কায়েমপুর ইউপি চেয়ারম্যান ইকতিয়ার আলম রনি। পরে হাসপাতালের অনুমতিতে স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর বীর মুক্তিযোদ্ধা রগু মিয়ার সহযোগিতায় তেতৈয়া মসজিদে গোসলের ব্যবস্থা করা হয় এবং কবরস্থানে তার লাশ দাফন করা হয়।